দেখলেই গ্রেফতার করুন চোকসিকে, অ্যান্টিগা সরকারকে আর্জি দিল্লির

জানা যাচ্ছে, জানুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে অ্যান্টিগুয়ার নাগরিকত্ব নেয় মেহুল। জানা যাচ্ছে, ১.৩ কোটি টাকার বিনিময়ে এই নাগরিকত্ব অর্জন করেছে সে

Updated By: Aug 3, 2018, 02:29 PM IST
দেখলেই গ্রেফতার করুন চোকসিকে, অ্যান্টিগা সরকারকে আর্জি দিল্লির
ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: জল, স্থল এবং অন্তরীক্ষ যেখানেই ঋণখেলাপি মেহুল চোকসিকে দেখা যাক, সেখানেই যেন তাকে আটক করে অ্যান্টিগা প্রশাসন। এমনই অনুরোধ জানাল নয়া দিল্লি। চিঠি এবং টেলিফোন দুই মাধ্যমেই এই বার্তা অ্যান্টিগা এবং বারবুডার প্রশাসনকে জানানো হয়েছে বলে খবর।

আরও পড়ুন- করুণানিধির শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক, হাসপাতালের বাইরে ভিড় অনুগামীদের

বিদেশ মন্ত্রকের সংশ্লিষ্ট দফতর সূত্রে খবর, অ্যান্টিগা মেহুল চোক্সির উপস্থিতি সম্বন্ধে অবগত হওয়ার পর চিঠি এবং ফোনে দিল্লি জানিয়েছে, স্বর্ণব্যবসায়ী চোকসিকে যে কোনও পরিস্থিতিতে আটক করুক সে দেশের সরকার। এমনকী বলা হয়েছে, জল, স্থল  বা আকাশপথেও চোকসির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করার কথা। উল্লেখ্য, মেহুল চোকসি নিজেই জানিয়েছেন সে দেশের নাগরিকত্ব পেয়েছেন তিনি।  প্রথমে সন্দেহ করা হয়েছিল বিজয় মালিয়ার মতো মেহুলও ব্রিটেনে গা ঢাকা দিয়েছে। তখন ইন্টারপোলের মাধ্যমে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়। কিন্তু ব্রিটেনে তার টিকিটুকু ধরা যায়নি। তবে এরপর, অ্যান্টিগায় মেহুলের নাগরিকত্বের খবর সামনে আসার পর নড়েচড়ে বসে ভারতীয় গোয়েন্দারা।

আরও পড়ুন- নাম নেই ৪০ লক্ষের, তালিকা চূড়ান্ত নয় জানাল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক

চলতি বছরের জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই দেশ ছাড়ে ব্যবসায়ী মেহুল। এর পর দেশের প্রথম সারির রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক পিএনবির আর্থিক কেলেঙ্কারির খবর প্রকাশ্যে আসে। মেহুল চোকসি এবং তার ভাগনে তথা হিরে ব্যবসায়ী নীরব মোদির বিরুদ্ধে ভুয়ো নথি দেখিয়ে পিএনবি থেকে ১৩,৫০০ কোটি টাকার মেমরেন্ডাম অফ আন্ডারটেকিং আদায়ের অভিযোগ ওঠে। এরপর ২৯ জানুয়ারি সিবিআইয়ের কাছে অভিযোগ জানায় পিএনবি কর্তৃপক্ষ। কিন্তু তার আগেই দেশ ছাড়া হয়ে যায় নীরব এবং মেহুল।

জানা যাচ্ছে, জানুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে অ্যান্টিগার নাগরিকত্ব নেয় মেহুল। জানা যাচ্ছে, ১.৩ কোটি টাকার বিনিময়ে এই নাগরিকত্ব অর্জন করেছে সে। অ্যান্টিগা-তে ব্যবসা বৃদ্ধি করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ১৩২ দেশের ভিসা-ফ্রি ভ্রমণের সুবিধাও মেহুল আদায় করে নেয় বলে জানা গিয়েছে। তবে, মেহুলের প্রত্যার্পণে সমস্যা দেখা দিতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। কারণ, ভারতের সঙ্গে সে দেশের কোনও প্রত্যার্পণ চুক্তি নেই, যার সুবিধা নিয়েছে ধুরন্ধর মেহুল চোকসি। উল্লেখ্য, এনডিটিভি-কে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে অ্যান্টিগার এক আধিকারিক জানিয়েছেন, মেহুলের এই দুর্নীতি আগে জানা থাকলে, তাকে নাগিরকত্ব দেওয়া হত না।  

আরও পড়ুন- 'নিজের দেশেই উদ্বাস্তু' ৪০ লাখ বাঙালি, কড়া প্রতিক্রিয়া মমতার