স্বাধীনতার ৭০ বছর পর মোদীর জমানায় 'আলো'র মুখ দেখল জোকাপথ

২০১৪-তে কেন্দ্রে ক্ষমতায় আসার পরই দেশের প্রতিটি প্রতিটি কোণায় কোণায় বিদ্যুত্ পৌঁছে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয় মোদী সরকার। 'দীনদয়াল উপাধ্যায় গ্রাম জ্যোতি যোজনা'র আওতায় শুরু হয় গ্রামে গ্রামে বিদ্যুত্ পৌঁছে দেওয়ার কাজ।

Updated By: Dec 17, 2017, 02:28 PM IST
স্বাধীনতার ৭০ বছর পর মোদীর জমানায় 'আলো'র মুখ দেখল জোকাপথ

নিজস্ব প্রতিবেদন : ভোর হতেই কাজে নেমে পড়তেন গ্রামের ছেলেবুড়ো সবাই। আর সূর্যাস্তের পরই নিঝুম হয়ে যেত। সূর্য অস্ত যাওয়ার সাথে সাথেই অন্ধকারে ডুবে যেত গোটা গ্রাম। কারণ গ্রামে যে বিদ্যুত্ নেই।

আলো বলতে ভরসা ছিল লণ্ঠন বা হ্যাজাক। টিম টিমে আলোতেই চলত ঘর গেরস্থালির কাজ থেকে শিশুদের পড়াশুনো। স্বাধীনতার পর অর্ধশতক বছর পেরিয়ে গেলেও গ্রামে ছিল না আলো। অবশেষে অন্ধকার ঘুচতে চলেছে সেই গ্রামের। ছত্তিশগড়ের বলরামপুর জেলার জোকাপথ গ্রামে পৌঁছল বিদ্যুত সংযোগ। স্বাধীনতার ৭০ বছর পর বিদ্যুত পেল জোকাপথ।

প্রসঙ্গত, ২০১৪-তে কেন্দ্রে ক্ষমতায় আসার পরই দেশের প্রতিটি প্রতিটি কোণায় কোণায় বিদ্যুত্ পৌঁছে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয় মোদী সরকার। 'দীনদয়াল উপাধ্যায় গ্রাম জ্যোতি যোজনা'র আওতায় শুরু হয় গ্রামে গ্রামে বিদ্যুত্ পৌঁছে দেওয়ার কাজ।

আরও পড়ুন, গুজরাটে বিজেপির হারের আশঙ্কায় খোদ বিজেপি সাংসদ

২০১৮ সালের মধ্যেই ঘরে ঘরে বিদ্যুত্ সংযোগ পৌঁছে দিতে 'সৌভাগ্য' নামে আরও একটি প্রকল্পের সূচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। এই প্রকল্পের আওতায় আর্থ-সামাজিকভাবে দুর্বল প্রতিটি পরিবারকে পাঁচ বছরের জন্য বিনামূল্যে বিদ্যুত্ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র।