উন্নাওয়ে মাটির তলায় কোনও লুকনো সোনা নেই, ঘোষণা এএসআইয়ের।। বাবার স্বপ্ন বিফলে, একদিকে হতাশা আর অন্যদিকে হাসিতে ভাসছে দেশ

না, শেষ অবধি বিফলেই গেল বাবার স্বপ্ন। উত্তরপ্রদেশের উন্নাও জেলার ডোড়িয়াখেরা গ্রামে মাটির তলায় কোনও সোনা নেই। এই কথা আজ ঘোষণা করে দিল আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়া(এএসআই)।

Updated By: Oct 29, 2013, 02:37 PM IST

না, শেষ অবধি বিফলেই গেল বাবার স্বপ্ন। উত্তরপ্রদেশের উন্নাও জেলার ডোড়িয়াখেরা গ্রামে মাটির তলায় কোনও সোনা নেই। এই কথা আজ ঘোষণা করে দিল আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়া (এএসআই)। সেই সঙ্গে খনন কার্য শেষ করার কথাও ঘোষণা করা হল।
রাজমহলের নীচেই হাজার টন সোনার ভাণ্ডার আছে বলে দাবি করেন শোভন সরকার নামের এক সাধু৷ রাজমহলের একটি মানচিত্রও দেখান তিনি৷ তার ভিত্তিতেই রাজমহল সংলগ্ন কিছু এলাকা চিহ্নিত করে খনন শুরু হয় প্রশাসনের উদ্যোগে৷ ১৮ অক্টোবর থেকে সেই খননকার্য শুরু করে আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়া।
প্রাথমিকভাবে পরীক্ষা করার পর আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অব ইন্ডিয়া এবং জিওলজিক্যাল সার্ভে অব ইন্ডিয়া’র অনুমান, মহলের ১৫ থেকে ২০ ফুট নীচে ধাতব বস্তু থাকলেও থাকতে পারে৷
সাধু শোভন সরকারের দাবি করেছিলেন, স্বপ্নে খোদ দুর্গের মালিক রাজা রাম রাও বক্স সিংহ তাঁকে বলেছেন, রাজমহলের তলায় লুকোনো রয়েছে এক হাজার টন সোনা। সেটা বার না করা হলে তাঁর আত্মার শান্তি হচ্ছে না৷ রাজা রাম রাও বক্স সিংহ ১৮৫৭-এ সিপাহী বিদ্রোহের সময় ঝাঁসির রাণী লক্ষ্মী বাঈকে সাহায্য করেছিলেন। ব্রিটিশরা তাঁকে ফাঁসি দিয়েছিল।
যে পরিমাণ সোনা থাকার কথা সাধু স্বপ্নে দেখেছেন তা ১ হাজার টন থেকে ৫ হাজার টন এমন দাবিও করা হয়েছিল৷ ৫ হাজার টন সোনার বর্তমান মূল্য ১৫ লক্ষ কোটি টাকা ভারতের আর্থিক সংকট মোকাবিলার পক্ষে যা যথেষ্ট।