জিএসটি থেকে মুক্ত স্যানিটারি ন্যাপকিন

জিএসটির আওতা থেকে বাদ গেল স্যানিটারি ন্যাপকিন। স্যানিটারি ন্যাপকিনের মতো স্বাস্থ্য ও পরচ্ছন্নতার সঙ্গে জড়িত একটি অতি প্রয়োজনীয় দ্রব্যকে পণ্য ও পরিষেবা করের অন্তর্ভুক্ত করার কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরেই প্রতিবাদ চলছিল। এরপর শনিবার জিএসটি কাউন্সিলের বৈঠকে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হওয়ার পর, এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

Updated: Jul 21, 2018, 06:35 PM IST
জিএসটি থেকে মুক্ত স্যানিটারি ন্যাপকিন

নিজস্ব প্রতিবেদন: জিএসটির আওতা থেকে বাদ গেল স্যানিটারি ন্যাপকিন। স্যানিটারি ন্যাপকিনের মতো স্বাস্থ্য ও পরচ্ছন্নতার সঙ্গে জড়িত একটি অতি প্রয়োজনীয় দ্রব্যকে পণ্য ও পরিষেবা করের অন্তর্ভুক্ত করার কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরেই প্রতিবাদ চলছিল। এরপর শনিবার জিএসটি কাউন্সিলের বৈঠকে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হওয়ার পর, এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

স্যানিটারি ন্যাপকিনকে জিএসটি-র আওতায় নিয়ে আসার যুক্তি হিসাবে 'ইনপুট ট্যাক্স ক্রেডিটের' কথা বলেছিল কেন্দ্র। তাদের আরও দাবি ছিল, জিএসটি চালু হওয়ার আগে বিভিন্ন রকম 'লুকানো কর' জারি থাকায় আদতে ১৩ শতাংশ কর দিতে হত ক্রেতাকে। বরং, জিএসটি এসে যাওয়ায় বর্তমানে ১২ শতাংশ কর দিতে হচ্ছে। অর্থাত্, ক্রেতার মোটের উপর ১ শতাংশ খরচ বেঁচে যাচ্ছে। কিন্তু, সরকারের এহেন যুক্তি মানতে চায়নি সমাজের একটা বড় অংশ। এবার তাদের চাপের মুখেই জিএসটির আওতা থেকে মুক্ত হল স্যানিটারি ন্যাপকিন।