ক্রিকেটারদের প্রাপ্য টাকাই দিচ্ছে না বিসিসিআই!

Updated By: Oct 30, 2017, 01:12 PM IST
ক্রিকেটারদের প্রাপ্য টাকাই দিচ্ছে না বিসিসিআই!
ছবি- টুইটার

নিজস্ব প্রতিবেদন: শাক দিয়ে মাছ হয়ত আর ঢাকতে পারল না বিসিআই। সুপ্রিম কোর্টের নিয়োজিত কমিটি অব অ্যাডমিনিস্ট্রেশন-র পর্যবেক্ষণে বেশ কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এসেছে। টাইমস অব ইন্ডিয়ার একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী, ভারতীয় ক্রিকেটারদের বরাদ্দ অর্থ সঠিকভাবে দিচ্ছে না বিসিসিআই, এমনই অভিযোগ তুলেছে সিওআই। পাশাপাশি বেশ কিছু প্রশ্ন খাঁড়া করে কাঠগড়ায় তুলেছে বিসিআইকে।

বিসিসিআইয়ের নিয়ম অনুযায়ী বোর্ডের মোট মুনাফার ২৬ শতাংশ দেওয়া কথা ক্রিকেটারদের। সেখানে ভারতীয় ক্রিকেটাররা পাচ্ছেন মোটে ৮ শতাংশ। বাকি ১৮ শতাংশ কোথায়? উত্তর নেই ভারতের সর্বনিয়ামক সংস্থার কাছে।

আরও পড়ুন- ডোপ পরীক্ষা করাতেই হবে ভারতীয় ক্রিকেটারদের, কড়া নির্দেশ স্পোর্টস মন্ত্রকের

২০০১ সালে বিসিসিআইয়ের জেনারেল বডি ঘোষণা করেছিল সম্প্রচার সত্ত্বের মোট মুনাফার ২৬ শতাংশ পাবেন ক্রিকেটাররা। যদিও তা কার্যকর হতে সময় লাগে আরও তিন বছর।  ২০০৪ সালে জগমোহন ডালমিয়া বোর্ড প্রেসিডেন্ট হওয়ার পরই ভারতীয় ক্রিকেটাররা প্রথম বোর্ডের মুনাফার অংশীদার হন। তৎসময়ে ভারতীয় দলের সিনিয়র ক্রিকেটারদের সঙ্গে কথা বলেই ঠিক হয়, বোর্ডের মুনাফা ভাগ হবে তিন ভাগে। ২৬ শতাংশের মধ্যে ১৩ শতাংশ পাবেন আন্তর্জাতিক ক্রিকাটাররা। ১০.৬ শতাংশ পাবেন রাজ্যস্তরের ক্রিকেটাররা। আর অবশিষ্ট যাবে জুনিয়র ক্রিকেটার এবং মহিলা ক্রিকেটারদের খাতে। কিন্তু এই পরিকল্পনাই সার! ভাগাভাগি তো দূর, ২৬ শতাংশ মুনাফার এক তৃতীয়াংশের অংশীদারই হতে পারেননি ক্রিকেটাররা, এমনই তথ্য ফাঁস করল সিওএ।

আরও পড়ুন- এবিকে হটিয়ে এখন দ্রুততম ৯ হাজারি বিরাট কোহলি

যদিও সূত্রের খবর, মুনাফার ৭০ শতাংশ রাজ্যস্তরের ক্রিকেট উন্নয়নের জন্য ব্যয় করা হয়েছে বলেই কমিটি অব অ্যাডমিনিসট্রেশন-কে জানিয়েছে বোর্ড কর্তারা। বাকি ৩০ শতাংশের মধ্যে ২৬ শতাংশ ক্রিকেটারদের বরাদ্দ বাদ দিলে অবশিষ্ট অর্থ খরচ হয় স্টেডিয়াম নির্মাণ, পরিকাঠামোগত উন্নয়ন এবং বোর্ড পরিচালানায়।

আরও পড়ুন- ধরাশায়ী নিউ জিল্যান্ড, সিরিজ তুলে নিল বিরাট বাহিনী

সিওএ-র অভিযোগ, স্পন্সরশিপের যে অংশ ক্রিকেটারদের পাওয়া উচিত, তা থেকেও বঞ্চিত হয়েছেন তাঁরা। সর্বভারতীয় ওই পত্রিকার প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, বোর্ডের এই বঞ্চনা এবং অস্বচ্ছ পরিকাঠামোর পরিবর্তন আনতে চেয়েছে কমিটি অব অ্যাডমিনিসট্রেশন। কিন্তু বোর্ড কর্তাদের গড়িমসির জন্যই এখনও তা করা যায়নি। একই সঙ্গে কমিটি অব অ্যাডমিনিসট্রেশন-এর দাবি আইসিসি ইভেন্ট বাদ দিয়ে আইপিএল থেকে যে মুনাফা বোর্ড অর্জন করে, সেবিষয়েও রয়েছে অস্বচ্ছতা। তবে এই বিষয়ে বোর্ড কর্তাদের কেউই মুখ খোলেননি। এমনকি এই মারাত্মক অভিযোগের পরও কোনও জবাব আসেনি বোর্ডের পক্ষ থেকেও। 

আরও পড়ুন- টি ২০-তে রেকর্ড, মাত্র ৩৫ বলে বিস্ফোরক সেঞ্চুরি মিলারের