এজবাস্টনে প্রথম টেস্টে হার বাঁচাতে পারল না বিরাটের ভারত

সেই বিরাটের কাঁধে ভর করেই টেস্ট জয়ের স্বপ্ন দেখছিল ভারত।

Updated By: Aug 4, 2018, 05:13 PM IST
এজবাস্টনে প্রথম টেস্টে হার বাঁচাতে পারল না বিরাটের ভারত

নিজস্ব প্রতিবেদন :  একা বিরাটে শেষ রক্ষে হল না। এজবাস্টনে প্রথম টেস্টে হেরে গেল টিম ইন্ডিয়া। টেস্টের চতুর্থ দিনের সকালেই ১৬২ রানে  গুটিয়ে গেল ভারতের দ্বিতীয় ইনিংস। ৩১ রানে এজবাস্টন টেস্ট জিতে পাঁচ টেস্টের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল রুটবাহিনী। 

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্ট জিততে ভারতের দরকার ছিল ৮৪ রান, হাতে ছিল ৫ উইকেট। আর ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ছিল ৫টি উইকেট। আর এই জয় পরাজয়ের ব্যবধানের মাঝে দাঁড়িয়েছিলেন বিরাট কোহলি। ওই একজন সব থেকে বড় বাধা। ওই একজনই দাঁড়িয়ে গেলে পাহাড়ের মতো চাপ এসে পড়ে অ্যান্ডাসন, ব্রডদের। ২০১৪ আর ২০১৮-র বিরাটের মধ্যে যে অনেক ফারাক সেটা প্রথম ইনিংসেই বুঝিয়ে দিয়েছেন ভিকে। সেই বিরাটের কাঁধে ভর করেই টেস্ট জয়ের স্বপ্ন দেখছিল ভারত।

আরও পড়ুন - 'বিরাটকে স্বপ্নে দেখছি', বলছেন ইংলিশ পেসার অ্যান্ডারসন

৫ উইকেটে ১১০ রান নিয়ে চতুর্থ দিন খেলতে নামে ভারত। ৪৩ রানে অপরাজিত কোহলি সঙ্গে ১৮ রানে ক্রিজে দীনেশ কার্তিক। কিন্তু প্রথম ওভারেই অ্যান্ডারসনের বলে আউট দীনেশ কার্তিক। এরপর বিরাট কোহলি আর হার্দিক পান্ডিয়া ধীরে ধীরে পার্টনারশিপ গড়ার কাজটা করেছিলেন। হাফ সেঞ্চুরিও করে ফেলেন বিরাট। এরপরেই রুটের মাস্টারস্ট্রোক। অ্যান্ডারসনের বদলে নিয়ে এলেন বেন স্টোকসকে। কোহলির উইকেট তুলে নিলেন তিনি। এলবিডব্লিউ হয়ে ৫১ রান করে সাজঘরে ফিরলেন ভারত অধিনায়ক। সেই ওভারেই মহম্মদ শামিকে শূন্য রানে সাজঘরে ফিরিয়ে ইংল্যান্ডের জয়ের আশা জাগিয়ে তোলেন স্টোকস।

আরও পড়ুন - বিরাটকে 'গ্লোবাল সুপারস্টার' বললেন স্টিভ ওয়া

কিছুটা চেষ্টা করেন ইশান্ত শর্মা।কিন্তু ১১ রান করে আদিল রশিদের বলে এলবিডব্লিউর শিকার হলেন ইশান্তও। উমেশ যাদবকে সঙ্গে নিয়ে শেষ চেষ্টা করেন হার্দিক পান্ডিয়া। ৩১ রানে স্টোকসের বলে কুকের হাতে ধরা পড়তেই জয়ের স্বাদ পেল জো রুট অ্যান্ড কোম্পানি। দ্বিতীয় ইনিংসে ৪ উইকেট নিলেন স্টোকস। ২টি করে উইকেট নিলেন অ্যান্ডারসন ও ব্রড।

আরও পড়ুন -  নিজেদের দেশের সেরা ক্রিকেটারকেই তুলোধনা করলেন বাংলাদেশী সমর্থকরা

এজবাস্টন টেস্টে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক জো রুট। প্রথম ইনিংসে ২৮৭ রানে অল আউট হয়ে যায় ব্রিটিশরা। এরপর ২৭৪ রানে শেষ হয় ভারতের প্রথম ইনিংস। ১৩ রানের লিড নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে মাত্র ১৮০ রান করে ইংল্যান্ড। সবমিলিয়ে জয়ের জন্য ভারতের সামনে ১৯৪ রানের টার্গেট ছিল। কিন্তু ১৬২ রানেই দ্বিতীয় ইনিংস শেষ ভারতের।