নেমারের জন্য জীবন দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে এমবাপের

মন খারাপ এমবাপের।

Updated: Jul 12, 2018, 06:02 PM IST
নেমারের জন্য জীবন দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে এমবাপের

নিজস্ব প্রতিনিধি : রাশিয়া বিশ্বকাপে তিনি এখন নতুন তারকা। ফ্রান্সের হয়ে তিনটে গোল করেছেন। সেইসঙ্গে তাঁর গতি ও স্কিল দেখে মুগ্ধ গোটা ফুটবল বিশ্ব। ১৯ বছর বয়সী কিলিয়ান এমবাপেকে নিয়ে উদ্দীপনা চোখে পড়ার মতো। এত কিছু পরও মন খারাপ এমবাপের। কেন জানেন?

আরও পড়ুন-  ১০২ ডিগ্রি জ্বর নিয়ে সেমিফাইনাল খেললেন ক্রোয়েশিয়ার তারকা

ক্লাব ফুটবলের ঘটনা। নেমারের সঙ্গে ফ্রান্সের প্যারিস সেন্ট জার্মেইনে খেলেন এমবাপে। ক্লাবের ট্রেনিংয়ে নেমার নাকি প্রচণ্ডরকম ব্যঙ্গ করেন এমবাপেকে। বিষয়টি এতটাই গুরুতর আকার নিয়েছে যে এমবাপের পরিবারকেও এখন এই ব্যাপার নিয়ে প্রকাশ্যে কথা বলতে হচ্ছে। ফরাসী তারকার মা দাবি করেছেন, ছেলে পিএসজিতে একেবারেই ভাল নেই। আর সেটা শুধু নেমারের ব্যবহারের জন্য। ইতিমধ্যে পিএসজির কোচও আসরে নেমেছেন। এবং দুই পক্ষের সঙ্গে আলোচনাও সেরেছেন। অবশ্য এমবাপের মায়ের অভিযোগের তালিকায় আছেন আরেক ব্রাজিলিয়ান তারকা। দানি আলভেজ। তাঁরা দুজনে মিলে সব সময় নাকি এমবাপেকে পরিহাস করেন। দানি ও নেমার মজা করে এমবাপেকে 'টিনেজ মিউট্যান্ট নিনজা টার্টল' এর চরিত্র 'দানাতেলো' বলে ডাকেন। মজা করতে করতে ব্যাপারটা এখন সিরিয়াস হয়ে গিয়েছে। আপাতত নেমার বা দানির সঙ্গে নাকি কথাও বলছেন না এমবাপে।

আরও পড়ুন-  নারীশরীরে ক্যামেরার তাক, ক্ষুব্ধ ফিফা

একটা ম্যাচে ভাল পারফর্ম করার জন্য নেমার ও দানি মিলে এমবাপেকে বাক্সবন্দি উপহার দিয়েছিলেন। নেমার সেটা খুলে দেখেন তাতে রয়েছে দানাতেলো একটা মুখোশ। মজর শুরু সেই দিন থেকেই। কিন্তু এখন ব্যাপারটা মোটেও আর মজার জায়গায় নেই।