ও.ইন্ডিজে টেস্ট সিরিজ কোহলিদের কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ এই পাঁচ কারণে

কাল, বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে ভারতীয় ক্রিকেটের নতুন অধ্যায়। অ্যান্টিগায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টের মাধ্যমে সামনের দেড় বছরে দীর্ঘ চ্যালেঞ্জ শুরু হচ্ছে ভারতের। টি২০ বিশ্বকাপ, আইপিএল, আর জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে কার্যত প্রস্তুতি সিরিজের পর এবার পালা টেস্ট ক্রিকেটের। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে সিরিজ কেন গুরুত্বূপর্ণ ভারতের কাছে

Updated By: Jul 20, 2016, 01:36 PM IST
ও.ইন্ডিজে টেস্ট সিরিজ কোহলিদের কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ এই পাঁচ কারণে

ওয়েব ডেস্ক: কাল, বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে ভারতীয় ক্রিকেটের নতুন অধ্যায়। অ্যান্টিগায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টের মাধ্যমে সামনের দেড় বছরে দীর্ঘ চ্যালেঞ্জ শুরু হচ্ছে ভারতের। টি২০ বিশ্বকাপ, আইপিএল, আর জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে কার্যত প্রস্তুতি সিরিজের পর এবার পালা টেস্ট ক্রিকেটের। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে সিরিজ কেন গুরুত্বূপর্ণ ভারতের কাছে

কুম্বলের প্রথম পরীক্ষা--রবি শাস্ত্রীর মুখের গ্রাস কেড়ে নিয়ে কোচের দায়িত্ব পেয়েছেন অনিল কুম্বলে। শাস্ত্রীকে বাদ দিয়ে তাকে কোচ করায় বিতর্ক কম হয়নি। এবার ও.ইন্ডিজ সফরে সাফল্য না পেলে কুম্বলে বড় সমালোচনার মধ্যে পড়বেন। ভুলে গেলে চলবে না কুম্বলের সঙ্গে বোর্ডের মাত্র এক বছরের চুক্তি আছে। কোচ কুম্বলে দলের প্র্যাকটিশে নানা অভিনব পদ্ধতি এনেছেন, এখন দেখার সেটা মাঠে কতটা ফলপ্রসূ হয়।

আরও পড়ুন-ভারতের ও.ইন্ডিজ সফরের পূর্ণাঙ্গ ক্রীড়াসূচি

কঠিন মরসুমের শুরু--চলতি মরসুমে ভারত ১৩টা টেস্ট খেলবে। নিউজিল্যান্ড, ইংল্যান্ড,অস্ট্রেলিয়া। পরপর টেস্ট খেলতে হবে ভারতকে। আর এই কঠিন মরসুমের শুরুটা হচ্ছে কাল থেকে। আর কে না জানে সব ভাল হতে হলে শুরটা ভাল হতে হয়। কথায় বলে 'মর্নিং শোজ দ্য ডে'।

আরও পড়ুন- ১৭৫ ওভার টানা ব্যাট করে যাওয়ার রেকর্ড!

কোহলির ফ্রেশ স্টার্ট- টেস্ট ক্রিকেটে ধোনি অবসর নিয়েছেন দেড় বছর হয়ে গেল। সেদিক থেকে দেখলে পাকাপাকিভাবে টেস্টে কোহলি অধিনায়কত্ব করছেন দেড় বছর ধরে। ৮টা টেস্টে অধিনায়কত্ব করে জিতেছেন ৫টাতে, হেরেছেন ১টাতে। বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা থেকে টেস্ট সিরিজ জিতে ফিরেছেন। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে দেশের মাটিতে চার টেস্টের সিরিজ জিতেছেন ৩-০। কিন্তু চলতি বছর এখনও পর্যন্ত একটাও টেস্ট খেলেনি ভারত। এই ক মাসে ভারতীয় দল ছিল ধোনির ছায়াতেই। সেই হিসেবে দেখলে নতুন শুরু কোহলির।

নতুন টিম ইন্ডিয়া-- বেশ কয়েকজন নতুন মুখকে দেখা যাবে এই সিরিজে। এই যেমন লোকশ রাহুল, শার্দুল ঠাকুর। ওপেনার হিসেবে মুরলী বিজয়ের সঙ্গে ধাওয়ান না রাহুল সেটা দেখার বিষয়। এই সফরই ঠিক করে দিতে পারে আগামী দিনে কোন দুজনকে ওপেন করতে দেখা যাবে। রোহিত শর্মা জীবনে অনেক সুযোগ পেয়েছেন। এখন টেস্টে তাঁকে প্রমাণ করতে হবেই। ঋদ্ধিমান সাহার কাছে সফরটা চ্যালেঞ্জর। শুধু উইকেটের পিছনে দু চারটে ভাল ক্যাচ নয়, ব্যাট হাতেও জ্বলে উঠতে হবে শিলিগুড়ির পাপালিকে। ধোনি পরবর্তী ভারতীয় ক্রিকেটে উইকেটের পিছনে থাকার এখন জোর লড়াই। চোট সারিয়ে ফেরা সামির কাছেও কঠিন পরীক্ষা। অলরাউন্ডার স্লটে বিনি বাম জাদেজার লড়াইটাও আগামী দিনের জন্য অনেক কিছু ঠিক করে দেবে। অমিত মিশ্র-র কাছেও বড় সুযোগ। সব মিলিয়ে নতুন টিম ইন্ডিয়ার কাছে বড় চ্যালেঞ্জ।

আরও পড়ুন- ২০ বছর বাদে ফের বোলারদের তালিকায় শীর্ষে কোনও পাকিস্তানি বোলার

আইসিসি র‍্যাঙ্কিং- আইসিসি র‍্যাঙ্কিংয়ে এই মুহূর্তে ভারত দু নম্বরে। পয়েন্ট ১১২। এখন কোহলিদের কাছে চ্যালেঞ্জ পয়েন্ট ধরে রাখা। কারণ তিন নম্বরে থাকা পাকিস্তান (১১১ পয়েন্ট) ভারতের ঘাড়ে নি:শ্বাস ফেলছে। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে লর্ডসে স্মরণীয় জয়ের পর পাকিস্তান এখন ভাল জায়গায়।  অষ্টম স্থানে থাকা ওয়েস্ট ইন্ডিজের থেকে ৪৪ পয়েন্টে এগিয়ে বিরাট কোহলিরা। পয়েন্ট ধরে রাখতে গেলে ভারতকে অন্তত ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ জিততেই হবে। ২-০ বা ৩-১ ব্যবধানে জিতলেও ভারতের পয়েন্ট কমে হবে ১১০। অন্যদিকে, ওয়েস্ট ইন্ডিজ যদি ৩-১ বা ২-০ ফলে সিরিজ জিতে যায়, তাহলে ভারতের পয়েন্ট কমে হবে ৯৮। কিন্তু ভারত যদি বড় ব্যবধানে সিরিজ জিততে পারে এবং অস্ট্রেলিয়া ১-০ ব্যবধানেও হেরে যায়, তাহলে স্টিভ স্মিথের দলের পয়েন্ট কমে হবে ১১১। সেক্ষেত্রে কোহলিরাই শীর্ষে চলে যাবেন।

পড়ুন- কুম্বলের প্রতি অবিচার