আমফান আতঙ্ক, ১২০ কিমি বেগে ঝড় বইবে! হুগলিতে সরানো হল ৭ হাজার মানুষকে

জেলা হেড কোয়ার্টার ছাড়াও ৪টি মহকুমা ও ১৮টি ব্লকে কন্ট্রোলরুম খোলা হয়েছে। কন্ট্রোলরুম ও টোল ফ্রি নাম্বারগুলি হল ১৮০০৩৪৫৬১৩৫ / ০৩৩-২৬৮১২৬৫২। 

Updated By: May 19, 2020, 08:29 PM IST
আমফান আতঙ্ক, ১২০ কিমি বেগে ঝড় বইবে! হুগলিতে সরানো হল ৭ হাজার মানুষকে
আমফান মোকাবিলায় প্রস্তুত স্পিডবোট

নিজস্ব প্রতিবেদন : সুপার সাইক্লোন আমফান মোকাবিলায় প্রস্তুত হুগলি জেলা প্রশাসন। বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীকে প্রস্তুত করা হয়েছে। কাঁচা বাড়ি থেকে ৭ হাজারের বেশি মানুষকে সরিয়ে নিয়ে গিয়ে রাখা হয়েছে ত্রাণ শিবিরে। বিদ্যুৎ দফতরর, স্বাস্থ্য দফতর, সেচ, কৃষি, দমকল, পুলিস সহ ২৪ টি দফতরকে সতর্ক করা হয়েছে।

করোনার জেরে লকডাউনের ফলে জলপথ পরিবহন বন্ধ রয়েছে। তাও সতর্কতা হিসেবে নদীতে নৌকা নামাতে নিষেধ করা হয়েছে। নদী তীরবর্তী এলাকায় মাইকিং করে সতর্ক করা হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। ঝড়ের সময় বাইরে থাকতে বারণ করা হচ্ছে জন সাধারণকে। ত্রাণ মজুত করা হয়েছে। ত্রিপল শুকনো খাবার, জল সময়মতো ক্ষতিগ্রস্তদের কাছে যাতে পৌঁছে দেওয়া যায়, তার সবরকম ব্যবস্থা করা হয়েছে। ২৪ ঘণ্টার জন্য কন্ট্রোলরুম খোলা হয়েছে। সবমিলিয়ে আমফান মোকাবিলায় তৎপর হুগলি জেলা প্রশাসন।

হুগলি জেলাশাসক ওয়াই রত্নাকর রাও জানিয়েছেন, তিনি তাঁর অফিস থেকে সামগ্রিকভাবে নজরদারি চালাবেন। একটি হেল্পলাইন নম্বর চালু করা হয়েছে। বিপদ হলে সেই হেল্পলাইন নম্বরে ফোন করতে পারবেন মানুষ। জেলা হেড কোয়ার্টার ছাড়াও ৪টি মহকুমা ও ১৮টি ব্লকে কন্ট্রোলরুম খোলা হয়েছে। কন্ট্রোলরুম ও টোল ফ্রি নাম্বারগুলি হল ১৮০০৩৪৫৬১৩৫ / ০৩৩-২৬৮১২৬৫২। হুগলি জেলায় ৪৭টি ত্রাণ শিবির খোলা হয়েছে। 

২০০০-এর বেশি ত্রিপল বিলি করা হয়েছে। আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস আনুযায়ী, আমফানের দাপটে হুগলিতে ঘণ্টায় ১১০-১২০ কিমি বেগে ঝড় বইতে পারে। আমফানের মোকাবিলায় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী প্রস্তুত রয়েছে। ১৪৮ জন সিভিল ডিফেন্স ভলেন্টিয়ারকে নিযুক্ত করা হয়েছে। SDRF-এর একটি দলকে পুরশুড়া রেসকিউ ক্যাম্পে রাখা হয়েছে। অন্যদিকে ২টি স্পিড বোট রাখা হয়েছে শ্রীরামপুর ও চন্দননগরে। 

আরও পড়ুন, "মাথা, তারপর চোখ হিট করবে, শেষে টেইল সব উড়িয়ে নিয়ে যাবে... কাল ১২টার পর ঘর থেকে বেরবেন না"