"স্ত্রী যুবতী সুন্দরী", স্বামী শেষমেশ এটাই করল...চরম পরিণতি!

যুবতী সুন্দরী স্ত্রীকে সন্দেহ করতেন বিশ্বজিত। সেই নিয়ে মাঝেমধ্যেই অশান্তি হত দুজনের।

Updated: Dec 6, 2018, 12:37 PM IST
"স্ত্রী যুবতী সুন্দরী", স্বামী শেষমেশ এটাই করল...চরম পরিণতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন : এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে খুনের অভিযোগ উঠল স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়ার কল্যাণী থানার সুভাষপল্লিতে। মৃতের নাম সোমা মজুমদার। বয়স ২২ বছর।

আরও পড়ুন, পরপুরুষের সঙ্গে 'ফষ্টিনষ্টি'? স্ত্রীকে কুপিয়ে খুনের চেষ্টার পর লাইনে ঝাঁপ স্বামীর

মৃতের পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, ৭ বছর আগে ২০১১ সালে সম্বন্ধ করে কল্যাণীর সুভাষপল্লির বাসিন্দা বিশ্বজিৎ মজুমদারের সঙ্গে বিয়ে হয় ধানতলা থানার আড়ংঘাটা দোলতলাপাড়ার সোমা সরকারের। অভিযোগ, বিয়ের পর থেকেই স্ত্রীর উপর অত্যাচার শুরু করে বিশ্বজিৎ। রোজ মদ খেয়ে বাড়ি ফিরত বিশ্বজিত্। মত্ত অবস্থায় স্ত্রীকে মারধর করত। জুয়ার নেশাও ছিল বিশ্বজিতের।  

আরও পড়ুন, এক কোপে ভাইপোর আঙুল কেটে নিল কাকা! কারণ জানলে আঁতকে উঠবেন

পাশাপাশি, আরও একটি বিষয় নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দাম্পত্য কলহ লেগেই ছিল। যুবতী সুন্দরী স্ত্রীকে সন্দেহ করতেন বিশ্বজিত। সেই নিয়ে মাঝেমধ্যেই অশান্তি হত দুজনের। সম্প্রতি এক খুড়তুতো বোনের বিয়েতে আড়ংঘাটা যায়  সোমা।  ফিরে আসার পর অশান্তি চরমে ওঠে ।

আরও পড়ুন, মদ খাওয়ার টাকা না দেওয়ায় ঘুমন্ত মেয়েকে পুড়িয়ে মারল বাবা, সীমাহীন নৃশংসতা

মৃতার বাপের বাড়ির তরফে অভিযোগ, তারপরই সোমাকে খুন করে বিশ্বজিত। শ্বাসরোধ করে খুনের পর ঝুলিয়ে দেয়। এই ঘটনায় কল্যাণী থানায় স্বামী বিশ্বজিত সহ শ্বশুরবাড়ির ৭ জনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন সোমার বাবা। অভিযুক্ত স্বামী বিশ্বজিৎ মজুমদারকে বুধবার রাতেই গ্রেফতার করেছে পুলিস।