সিল করা ঠান্ডা পানীয়ের বোতলে ভাসছে শ্যাওলা!

ভাগাড়কাণ্ডের সময় বর্ধমানের রেস্তরাঁতে অভিযান চালিয়ে পচা মাংস মিলেছিল। দিন কয়েক আগে রসগোল্লাতে ও মিলেছিল পোকা।

Updated: Aug 10, 2018, 09:18 PM IST
সিল করা ঠান্ডা পানীয়ের বোতলে ভাসছে শ্যাওলা!

নিজস্ব প্রতিবেদন : রেস্টুরেন্টে পচা মাংস, রসগোল্লাতে পোকার পর, এবার সিল করা ঠান্ডা পানীয়ের বোতলে মিলল ছত্রাক। এই ঘটনার জেরে এদিন চাঞ্চল্য ছড়াল বর্ধমান শহরে। এই ঘটনায় ক্রেতা, বিক্রেতা উভয়ে মিলে নালিশ ঠুকেছেন জেলাশাসকের কাছে।

বর্ধমান শহরের বীরহাটা এলাকার একটি দোকান থেকে এদিন ১০ টাকা মূল্যের ওই ঠান্ডা পানীয়ের বোতলটি কেনেন বড়নীলপুরের বাসিন্দা মানবেন্দ্র শীল। প্লাস্টিকের বোতলটি হাতে নিয়েই তিনি লক্ষ্য করেন, সিল করা বোতলে শ্যাওলা জাতীয় কিছু ভাসছে। সঙ্গে সঙ্গে তিনি দোকানদার সায়ন অধিকারীকে বিষয়টি জানান। দোকানদারও দেখেন, সত্যি সত্যিই বোতলের মধ্যে কিছু ভাসছে।

এরপরই ক্রেতা-বিক্রেতা দুজনই ঠিক করেন, বিষয়টি তাঁরা প্রশাসনের কাছে জানাবেন। সেই মতো শ্যাওলা শুদ্ধ বোতল নিয়ে হাজির হন জেলাশাসকের দফতরে। জেলাশাসকের কাছে  তারা লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন তাঁরা।

আরও পড়ুন, দাম্পত্য কলহের মর্মান্তিক পরিণতি! শ্বশুরবাড়িতে এসে স্ত্রীর হাতে খুন জামাই

মানবেন্দ্র শীল জানিয়েছেন, বোতলটি হাতে নিয়ে সিল খোলার আগেই পানীয়ের মধ্যে কালো জাতীয় জিনিস তাঁর নজরে আসে। দেখতে পান, সেটি পানীয়ের মধ্যে ভাসছে। সঙ্গে সঙ্গে তিনি বিষয়টি দোকানদারকে দেখান।

দোকানদার সায়ন অধিকারীর সাফ বক্তব্য, এই ঘটনার জন্য দায়ী ওই ঠান্ডা পানীয়ের কোম্পানি-ই। সিল করা বোতলে এভাবে ছত্রাক আসার ঘটনায় ওই কোম্পানিই গাফিলতি-ই স্পষ্ট হয়। তারা কোনওভাবেই এই ঘটনার দায় এড়াতে পারে না। ভবিষ্যতে কোনওভাবে যাতে দূষিত জিনিস তারা বাজারে বিক্রি করতে না পারে, সেইজন্যই বিষয়টি জেলাশাসককে জানানোর সিদ্ধান্ত নেন তাঁরা।

আরও পড়ুন, নাতনির সামনেই দিনের পর দিন বউমাকে 'ধর্ষণ'-এর চেষ্টা শ্বশুরের, পরিণতি মর্মান্তিক

উল্লেখ্য, ভাগাড়কাণ্ডের সময় বর্ধমানের রেস্তরাঁতে অভিযান চালিয়ে পচা মাংস মিলেছিল। দিন কয়েক আগে রসগোল্লাতে ও মিলেছিল পোকা। এবার ঠান্ডা পানীয়তে ছত্রাক। একের পর এক  ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে সাধারণ মানুষের মনে। পুরসভার তরফে নিয়মিত নজরদারি চালানোর দাবি জানিয়েছেন তাঁরা। এই ঘটনায় বর্ধমান থানাতেও অভিযোগ দায়ের হয়েছে।