প্রেগন্যান্সির এরকম নজির দেশে-বিদেশে কোথাওই নেই!

বিশ্বে এই ধরনের ঘটনার নজির খুব বেশি নেই। ভারত অনেক পরে বিদেশেও সেভাবে এই ঘটনার কথা শোনা যায়নি। আর তাই খবরটি সোশ্যাল মিডিয়াতে আসার পরই বর্তমানে তা ভাইরাল।

Updated By: Sep 16, 2016, 08:49 PM IST
প্রেগন্যান্সির এরকম নজির দেশে-বিদেশে কোথাওই নেই!

ওয়েব ডেস্ক : বিশ্বে এই ধরনের ঘটনার নজির খুব বেশি নেই। ভারত অনেক পরে বিদেশেও সেভাবে এই ঘটনার কথা শোনা যায়নি। আর তাই খবরটি সোশ্যাল মিডিয়াতে আসার পরই বর্তমানে তা ভাইরাল।

ঘটনাটি ইংল্যান্ডের। রোজি ইয়ারলিং নামে এক ২৫ বছরের তরুণীর সঙ্গে ঘটেছে ঘটনাটি। দিন কয়েক আগেই তিনি জন্ম দিয়েছেন এক কন্যা। এই পর্যন্ত সবটাই স্বাভাবিক। কিন্তু এই জন্ম দেওয়ার পিছনে যে গল্পটি রয়েছে তা শুনলে আপনি চমকে উঠবেন।

আরও পড়ুন- eBay-তে স্ত্রী বিক্রি আছে! কিনবেন নাকি?

রোজি দিনের পর দিন বন্ধুদের সঙ্গে পার্টি করে বেড়াতেন। কোনওভাবেই তাঁকে দেখে মনে হত না যে তিনি সন্তানসম্ভবা। তিনি নিজেও সেই খবর জানতেন না। কারণ, গর্ভধারণের পর একজন মহিলার দেহে যে পরিবর্তনগুলি দেখা যায়, তার একটি লক্ষ্মণও ছিল না তাঁর মধ্যে। এমনকী, ঋতুচক্রও তাঁর ক্ষেত্রে ছিল স্বাভাবিক!

সেদিনও একইরকমভাবে বন্ধুদের সঙ্গে পার্টি সেরে ফেরার পর তাঁর পেটে ব্যথা হয়। হাসপাতালে ভর্তি করার পরই তিনি এক কন্যাসন্তানের জন্ম দেন। আর এতেই চিকিত্‍সক থেকে বন্ধুমহল সকলেই অবাক। তবে, বর্তমানে মা ও শিশু দু'জনেই সুস্থ। মেয়েকে কোলে নিয়ে একটি ছবিও পোস্ট করেছেন রোজি।