রাজ্যে আরও কড়া হচ্ছে বহুতল আবাসন নির্মাণ আইন

পরিবেশ বাঁচাতে বহুতল আবাসন তৈরির নিয়মে আরও কড়া হচ্ছে প্রশাসন। এখন থেকে দু লক্ষ বর্গফুট বা তার চেয়ে বেশি এলাকার ওপর গড়ে ওঠা আবাসনের ক্ষেত্রে পরিবেশ দফতরের NOC বা নো অবজেকশন সার্টিফিকেট বাধ্যতামূলক। সেই সার্টিফিকেটের আসল কপি, সংশ্লিষ্ট অঞ্চলের বিল্ডিং বিভাগে জমা দেওয়ার পর মিলবে নির্মাণের অনুমতি।

Updated By: Jul 19, 2016, 09:12 AM IST
রাজ্যে আরও কড়া হচ্ছে বহুতল আবাসন নির্মাণ আইন

ওয়েব ডেস্ক: পরিবেশ বাঁচাতে বহুতল আবাসন তৈরির নিয়মে আরও কড়া হচ্ছে প্রশাসন। এখন থেকে দু লক্ষ বর্গফুট বা তার চেয়ে বেশি এলাকার ওপর গড়ে ওঠা আবাসনের ক্ষেত্রে পরিবেশ দফতরের NOC বা নো অবজেকশন সার্টিফিকেট বাধ্যতামূলক। সেই সার্টিফিকেটের আসল কপি, সংশ্লিষ্ট অঞ্চলের বিল্ডিং বিভাগে জমা দেওয়ার পর মিলবে নির্মাণের অনুমতি।

আরও পড়ুন মহিলাকে কুপ্রস্তাব, প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে আক্রান্ত মহিলার স্বামী ও শ্বশুর!

রাজ্যে আরও কড়া হচ্ছে বহুতল আবাসন নির্মাণ আইন। বহুতল আবাসন নির্মাণের ক্ষেত্রে কনভার্সন সার্টিফিকেট, আরবান ল্যান্ড ফিলিং সার্টিফিকেট এবং ডিজাইন অফ ল্যান্ডের নক্সা জমা দেওয়া বাধ্যতামূলক। অথচ বহু ক্ষেত্রেই দেখা যেত যে প্রোমোটাররা একটা প্রভিশনাল সার্টিফিকেট জমা দিয়েই বিল্ডিং বিভাগ থেকে বহুতল তৈরির ছাড়পত্র পেয়ে যেতেন। তারপর পরিবেশ দফতর আপত্তি জানালে, বিষয়টি আইন-আদালত পর্যন্ত গড়াত। শেষমেশ আদালতের হস্তক্ষেপে আর্থিক জরিমানা দিয়েই পার পেয়ে যেত নির্মাণকারী সংস্থাগুলি।

এখন থেকে সেই প্রথা বন্ধ করতে উদ্যোগী পরিবেশ দফতর। তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছে, কনভার্সন সার্টিফিকেট, আরবান ল্যান্ড ফিলিং সার্টিফিকেট এবং ডিজাইন অফ ল্যান্ডের আসল নক্সা জমা না দিলে, কোনও অবস্থাতেই NOC দেবে না পরিবেশ দফতর। বিল্ডিং বিভাগের কাছে তাদের আর্জি, পরিবেশ দফতরের NOC ছাড়া সংশ্লষ্ট অঞ্চলের বিল্ডিং বিভাগ যেন কোনও ভাবেই বড় আবাসন তৈরিতে ছাড়পত্র না দেয়। যেসমস্ত আবাসন দু লক্ষ বর্গফুটের বেশি এলাকা জুড়ে গড়ে উঠবে, কেবল তাদের জন্যই এই নতুন নিয়ম কার্যকর হবে।

আরও পড়ুন বর্ধমানের মঙ্গলকোটে একটি বাড়ি থেকে উদ্ধার হল ১২৩টি তাজা বোমা

পরিবেশ দফতর আরও জানিয়েছে যে এখন থেকে আর কোনও অবস্থাতেই জলা জমিতে নির্মাণের অনুমতি দেওয়া হবে না। রবিবার পরিবেশ ভবনে একটি বৈঠক হয়। সেখানেই এই সিদ্ধান্তগুলি নেওয়া হয়।