নারী ও শিশুসুরক্ষা জোরদার করতে রাজ্যের নয়া গাইডলাইন

নারী ও শিশুদের ওপর অত্যাচার নিয়ে উদ্বিগ্ন সরকার। ধর্ষণ, শ্লীলতাহানি ও মানব পাচার পাচার রুখতে এবার তাই নারী ও শিশুসুরক্ষা গাইডলাইন তৈরি করল রাজ্য। নারী ও শিশুকল্যাণ মন্ত্রী শশী পাঁজা জানিয়েছেন, এলাকায় এলাকায় নজরদারি বাড়াতে ব্লকস্তরে কমিটি গঠন করা হবে।   

Updated By: Sep 8, 2014, 04:23 PM IST
নারী ও শিশুসুরক্ষা জোরদার করতে রাজ্যের নয়া গাইডলাইন

ব্যুরো: নারী ও শিশুদের ওপর অত্যাচার নিয়ে উদ্বিগ্ন সরকার। ধর্ষণ, শ্লীলতাহানি ও মানব পাচার পাচার রুখতে এবার তাই নারী ও শিশুসুরক্ষা গাইডলাইন তৈরি করল রাজ্য। নারী ও শিশুকল্যাণ মন্ত্রী শশী পাঁজা জানিয়েছেন, এলাকায় এলাকায় নজরদারি বাড়াতে ব্লকস্তরে কমিটি গঠন করা হবে।   

গত কয়েক বছরে প্রকাশ্যে এসেছে একের পর এক নারী নির্যাতনের ঘটনা। রক্ষা পায়নি শিশুরাও। এতে উদ্বিগ্ন নারী ও শিশুকল্যাণ দফতর। নারী ও শিশু নিরাপত্তায় নতুন গাইডলাইন তৈরি রাজ্য সরকার। নারী নিরাপত্তায় নজরদারি বাড়ানোর পাশাপাশি, মহিলাদের আত্মরক্ষার প্রশিক্ষণ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ব্লকস্তরে পুলিস প্রশাসনের সঙ্গে সমন্বয় রাখবে এই কমিটি।

মন্ত্রী অবশ্য দাবি করেছেন, পুলিস প্রশাসন ও তাঁর দফতরের সক্রিয়তায় জন সচেতনতা বেড়েছে। যার ফলে,  গত এক বছরে অনেক কমেছে  নারী নির্যাতন।

মন্ত্রীর আশা, মেয়েরা আর্থিক দিক দিয়ে সাবলম্বী হলে, তাঁদের ওপর নির্যাতন অনেকটাই কমবে। রাজ্যের কন্যাশ্রী প্রকল্প স্কুলস্তর থেকেই ছাত্রীদের আত্মবিশ্বাসী করে তুলবে বলে মনে করেন তিনি। আঠারো বছর বয়সের পর সেই ছাত্রীকে বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ দেওয়ার পরিকল্পনা করছে রাজ্য।

পঞ্চায়েতে মহিলাদের প্রতিনিধিত্ব বাড়ার নারী নিরাপত্তা নিয়ে সচেতনতা বাড়বে বলে আশা করছে সরকার।