'পিরিয়ড' ফিল্মে বিপ্লব 'প্যাডম্যান' অক্ষয়ের

বনশালির 'পদ্মাবত'-এর জন্য জায়গা ছেড়ে দিয়েছিলেন অক্ষয়। দু'সপ্তাহ পিছিয়ে দিয়েছিলেন নিজের সিনেমার মুক্তি। অবশেষে সেই ঘোষণা মতই আজ, ৯ ফেব্রুয়ারি একক বলিউড ফিল্ম হিসাবেই পর্দায় এলো 'প্যাডম্যা্ন'। ইতিমধ্যেই  সমাজকে বদলে দেওয়ার অঙ্গিকার নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে 'প্যাডম্যান'-এর পিরিয়ড চ্যালেঞ্জ। এবার একই চ্যালেঞ্জ নিয়ে সামনে প্যাডম্যান অক্ষয়। মেয়েদের ঋতুস্রাব নিয়ে সমাজকে লজ্জা মুক্ত হওয়ার বার্তা দিতে, কুসংস্কার মুক্ত করতে কতটা সফল 'প্যাডম্যান'? চলুন দেখে নেওয়া যাক সিনেমার রিভিউ...

Updated: Feb 9, 2018, 05:50 PM IST
'পিরিয়ড' ফিল্মে বিপ্লব 'প্যাডম্যান' অক্ষয়ের

নিজস্ব প্রতিবেদন : বনশালির 'পদ্মাবত'-এর জন্য জায়গা ছেড়ে দিয়েছিলেন অক্ষয়। দু'সপ্তাহ পিছিয়ে দিয়েছিলেন নিজের সিনেমার মুক্তি। অবশেষে সেই ঘোষণা মতই আজ, ৯ ফেব্রুয়ারি একক বলিউড ফিল্ম হিসাবেই পর্দায় এলো 'প্যাডম্যা্ন'। ইতিমধ্যেই  সমাজকে বদলে দেওয়ার অঙ্গিকার নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে 'প্যাডম্যান'-এর পিরিয়ড চ্যালেঞ্জ। এবার একই চ্যালেঞ্জ নিয়ে সামনে প্যাডম্যান অক্ষয়। মেয়েদের ঋতুস্রাব নিয়ে সমাজকে লজ্জা মুক্ত হওয়ার বার্তা দিতে, কুসংস্কার মুক্ত করতে কতটা সফল 'প্যাডম্যান'? চলুন দেখে নেওয়া যাক সিনেমার রিভিউ...

গল্পটা কী?

অরুণাচল প্রদেশের সেই রিয়েল প্যাডম্যান মুরুগানাথম রূপে সিনেময় হাজির হয়েছেন বলিউড সুপারস্টার অক্ষয় কুমার। যে মুরুগানাথম কিনা সর্বপ্রথম মহিলাদের জন্য কম দামে স্যানিটারি ন্যাপকিন বানিয়েছিলেন।  তবে সিনেমার পটভূমি এখানে অরুণাচল নয়, মধ্যপ্রদেশ। সিনেমায় দেখা যাচ্ছে  লক্ষীকান্ত চৌহানের (অক্ষয় কুমার) সঙ্গে বিয়ে হয় গায়ত্রীর (রাধিকা আপ্তের)। নতুন নতুন বিয়ে হয়েছে কিন্তু একটা কথা লক্ষীকান্তের (অক্ষয়) কিছুতেই বোধগম্য হয় না যে তাঁর স্ত্রী কেন মাসের ৫টা দিন বাইরে ঘুমোয়। শেষপর্যন্ত যখন স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঋতুস্রাব নিয়ে কথা বার্তা হল তখন বিষয়টা সামনে এল। কিন্তু লক্ষীকান্তের (অক্ষয়) পক্ষে কিছুতেই  বোঝানো সম্ভব হচ্ছেন না। যে এই সময়টা কখনওই নোংরা কাপড় ব্যবহার করা উচিত নয়। স্ত্রীকে স্যানিটারি প্যাড ব্যবহার করতে বললে, তার দাম বেশি হওয়ায় সেই প্রস্তাব খারিজ করে দেন গায়ত্রী ( রাধিকা আপ্তে)। সেই সময় থেকেই লড়াই শুরু করেন 'প্যাডম্যান' লক্ষীকান্ত চৌহান (অক্ষয়)।

অনেক গবেষণার পর তৈরি করতে শুরু করলেন অল্প দামের স্যানিটারি প্যাড। তবে সমস্যা আরও একটা রয়েছে, শুধু গায়ত্রীকেই (রাধিকা আপ্তে) নয়, গোটা গ্রামকে  'প্যাডম্যান' অক্ষয় কীভাবে বোঝাবেন যে ঋতুস্রাবের সময় স্যানিটারি ন্যাপকিন ব্যবহার করা কতটা জরুরি।  লড়াইটা বড়ই কঠিন। শেষপর্যন্ত কী হবে? কীভাবে চলবে এই লড়াই তা জানতে হলে প্রেক্ষেগৃহে যেতেই হবে। তা নাহলে সিনেমার আসল মজাটাই যে চলে যায়, তা না কি?

বিশ্লেষণ  

পরিচালক আর বালকি ও অক্ষয় কথা দিয়েছিলেন, বিষয় গুরু গম্ভীর হলেও  সিনেমাটি দর্শকদের বিন্দুমাত্র বোর করবে না। বলা যেতে পারে তাঁরা কথা রেখেছেন। ভীষণই মজার ছলে এতটা গুরুগম্ভীর এই বিষয় উপস্থাপনা করা হয়েছে। তবে হ্যাঁ, কখনও কখনও মনে হতে পারে সিনেমায় পরিসংখ্যানের বিষয়ে একটু বেশিই জোর দিয়েছেন পরিচালক। কখনও কখনও হয়ত মনে হতে পারে এটি জনসচেতনতা প্রসারে কোনও সরকারি বিজ্ঞাপন। তবে সিনেমার বাকি অংশে মজার ছলে এতখানি গুরুগম্ভীর একটা বিষয়ের উপস্থপনা এই ত্রুটিকে ঢেকে দিয়েছে। সবমিলিয়ে বিনোদনের মাধ্যমে সচেতনতা প্রসারে বেশ সক্ষয় পরিচালিক বালকি। সিনেমা দেখতে দেখতে দর্শকরা নিজের অজান্তেই সিনেমার সঙ্গে  জুড়ে যাবেন। দর্শকদের মধ্যে পরিচালক ও অভিনেতা অক্ষয় এই ধরণাও তৈরি করতে বোধহয় সফল যে একটু চেষ্টা করলেই বোঝহয় সমাজকে বদলে দেওয়া, পাল্টে দেওয়া সম্ভব।

অভিনয় 

আর অভিনয়ের প্রশ্নে অক্ষয় ও রাধিকা আপ্তে যে অসাধারণ, সেকথা না বললেই নয়। সিনেমা দেখে অক্ষয় যে সত্যিই সুপারহিরো তা যেন মানতেই হয়। পাশাপাশি গায়ত্রীর চরিত্রে রাধিকা আপ্তে অসামান্য। গোটা ছবিতে রাধিকার অভিনয় ভীষণ পরিণত। 'প্যাডম্যান' দেখে দর্শকরা যে আবেগতাড়িত হয়ে পড়বেন তা শুধু রাধিকার অভিনয়ের জন্যই। পাশপাশি সোনম কাপুর সহ অন্যান্য অভিনেতা, অভিনেত্রীদের অভিনয়ও প্রশংসনীয়।

 সিনেমাটোগ্রাফি, কোরিওগ্রাফি এবং  মিউজিক

গোটা সিনেমায় পিসি শ্রীরামের সিনেমাটোগ্রাফিও প্রশংসার দাবি রাখে। 'প্যাডম্যান'-অমিত ত্রিবেদী মিউজিক বিশেষ করেন 'আজ সে তেরি', 'লেড়কি সায়ানি হো গ্যায়ি', গানগুলি এটিকে অন্য মাত্রায় পৌঁছে দিয়েছে। প্রশংসনীয় কোরিওগ্রাফিও।

তবে এই প্রথমবার নয়, এর আগেও 'টয়লেট এক প্রেমকথা'র মত সমাজ সচেতনতামূলক ছবি বানিয়েছেন অক্ষয়। তবে বলাই বাহুল্য 'প্যাডম্যান',  'টয়লেট এক প্রেমকথা'কেও ছাপিয়ে গেছে। সব মিলিয়ে অক্ষয়ের 'প্যাডম্যন'কে ৫এ ৪ দেওয়াই যায়।

আরও পড়ুন- 

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close