ফুটবলার হওয়ার স্বপ্নে মুম্বই পাড়ি দিলেও মাঝপথেই ফিরতে হল ফুটবল পরিক্ষার্থী সুরজিতকে

নিজেই ফিরে এল বালিগঞ্জের নিখোঁজ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। পুলিসি জেরায় জানা গেল, ফুটবলার হওয়ার স্বপ্ন নিয়েই মুম্বই পাড়ি দিতে চেয়েছিল ছাত্রটি। কিন্তু ফিরতে হয়েছে মাঝপথেই।

Updated: Jan 20, 2014, 10:13 PM IST

নিজেই ফিরে এল বালিগঞ্জের নিখোঁজ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। পুলিসি জেরায় জানা গেল, ফুটবলার হওয়ার স্বপ্ন নিয়েই মুম্বই পাড়ি দিতে চেয়েছিল ছাত্রটি। কিন্তু ফিরতে হয়েছে মাঝপথেই।

ছত্তিশগড়ের রায়পুর থেকে সোমবার সকালে কলকাতা ফেরার পরই তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে পুলিস। উঠে আসে সাংসারিক অশান্তির মাঝে ফুটবলার হওয়ার স্বপ্নে বাড়ি থেকে পালানোর এক অন্য কাহিনী। তার হারিয়ে যাওয়া নিয়েই বিক্ষোভ দেখানো হয় মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে। সোমবার সকালে নিজেই ফিরল বালিগঞ্জের স্কুল ছাত্র সুরজিত মণ্ডল। জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে বালিগঞ্জ থানার পুলিস। উঠে আসে বাড়ি থেকে উধাও হওয়ার গল্পটা।

গোলকিপার হওয়ার স্বপ্নটা ছিলই। । কিন্তু বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছিল পরিস্থিতি । ক্লাস টেনের গণ্ডি এখনও পেরোনো হয়নি। তার আগেই অবশ্য বিয়ে সেরে ফেলেছে সুরজিত‍ মণ্ডল। এবার কিছু একটা করে না দেখালেই নয়। শোনা ছিল, গোলকিপারের সুযোগ মিলতে পারে মুম্বই এফসিতে। তাই আগাম পরিকল্পনা করেই এগিয়েছে সুরজিত। শনিবার বাড়ি থেকে বেরিয়ে নিজেই ভোঁতা ব্লেড দিয়ে হাত কেটে পোষাকে রক্ত মাখিয়ে ফেলে রেখেছিল থানার পিছনে। উদ্দেশ্য ছিল অপহরণের গল্প নিশ্চিত করা। ভেঙে ফেলেছিল মোবাইলের সিমকার্ডও। মুম্বই মেলে যাওয়ার সময়ই পরিচয় হয় ছত্তিশগড়ের রায়পুরের এক ব্যক্তির সঙ্গে। তিনিই বুঝিয়ে নিয়ে যান রায়পুরের বাড়িতে। পরামর্শ দেন, ফিরে গিয়ে মন দিয়ে পরীক্ষা দেওয়ার জন্য। ফেরার জন্য টাকাও দেন সুরজিতের হাতে। এরপরই কলকাতায় ফেরার ট্রেন ধরে সুরজিত।

ফুটবলের স্বপ্নে ঘর ছাড়ার গল্পটা নজর কেড়েছে তদন্তকারী পুলিস কর্মীদেরও। তাঁকে কলকাতা পুলিসের দলে সুযোগ দেওয়া নিয়েও তাই শুরু হয়েছে ভাবনা চিন্তা। সেটাই আপাতত সুরজিতের স্বপ্নপূরণের পথে এক চিলতে আলো।