হার্দিককে তৃণমূলে যোগদানের প্রস্তাব মমতার

২০১৯ সালে রাজ্যে তৃণমূলের প্রচারে আসবেন হার্দিক পটেল। 

Updated: Feb 9, 2018, 09:20 PM IST
হার্দিককে তৃণমূলে যোগদানের প্রস্তাব মমতার

নিজস্ব প্রতিবেদন: হার্দিক প্যাটেলকে তৃণমূলে যোগদানের প্রস্তাব দিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাতিদার নেতা প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, ২০১৯ সালে রাজ্যে তৃণমূলের হয়ে প্রচারে আসবেন তিনি। 

শুক্রবার নবান্নে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠক করেন হার্দিক প্যাটেল। হার্দিকের মতে, কংগ্রেস ও তৃণমূল একযোগে বিজেপির মোকাবিলা করা দরকার। এদিন হার্দিককে তৃণমূলে যোগদানের প্রস্তাব দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জননেত্রীকে হার্দিক প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটের প্রচারে কলকাতায় আসবেন তিনি। রাজনৈতিক মহলের মতে, কলকাতা ও হাওড়ায় গুজরাটি ভোটারদের একটা বড় অংশ রয়েছে। সেখানে হার্দিকের প্রচার প্রভাব ফেলতে পারে।    

গুজরাটের ভোটপর্বে ২৪ ঘণ্টাকে বিশেষ সাক্ষাত্কারে হার্দিক জানিয়েছিলেন, ইন্দিরা গান্ধীর পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতো লড়াকু নেত্রী তিনি দেখেননি। শুক্রবার নবান্নে বৈঠক ছেড়ে বেরানোর পর তাঁর গলায় মুগ্ধতা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে লেডি গান্ধী আখ্যা দিলেন তিনি। 

গুজরাটে প্যাটেল সংরক্ষণের দাবিতে আন্দোলন করে শিরোনামে আসেন হার্দিক প্যাটেল। সদ্য গুজরাটে বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেসকে সমর্থন দিয়েছিলেন এই পাতিদার নেতা। মোদীকে বেগও দিয়েছিলেন। ১০০ আসনও পার করতে পারেনি বিজেপি। ২০১৯ সালের আগে কেন্দ্রে মোদী বিরোধী জোট গঠনের তত্পরতা শুরু হয়েছে। সদ্য উপনির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ফোন করে জয়ের শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন সনিয়া গান্ধী। বিজেপি বিরোধিতাই তরুণ নেতাকে পোড়খাওয়া নেত্রীর কাছাকাছি এনেছে বলে মত রাজনৈতিক মহলের একাংশের।

আরও পড়ুন- আমলা মন্ত্রে তৃণমূলকে ঘায়েল করতে বৈঠকে বিজেপি