মায়ের উপর রোজ অকথ্য অত্যাচার চালাত বাবা, সহ্য করতে না পেরে বাবাকে খুন করল কিশোর পুত্র

ছোটখাট, তুচ্ছ-তুচ্ছাতি কারণে রোজ রোজ মায়ের উপর হাত তুলত মদ্যপ বাবা। প্রতিদিন অসহনীয় অত্যাচার সহ্য করতে হত মাকে। মারের সঙ্গেই জুটত অপমানজন কথা-বার্তা। দিনের পর দিন সন্তানদের সামনেই মায়ের চরিত্র নিয়ে নোংরা মন্তব্য করত বাবা। মায়ের উপর বাবার এই অত্যাচার আর সহ্য করতে পারেনি ছেলেটা, মেনে নিতে পারেনি মায়ের উপর চলতে থাকা নির্যাতন। চোখের সামনে মায়ের এই কষ্ট আর বরদাস্ত না করে পেরে চরম ক্ষোভে, রাগে বাবাকেই খুন করে ফেলল সুরাটের ১৪ বছরের কিশোর। বুধবার রাতে সুরাটের ভাটনা অঞ্চলে ঘটেছে এই মনখারাপ করা ঘটনাটি। বুধবার মধ্যরাতে ইছাপোর পুলিস স্টেশনে নাতির বিরুদ্ধে ছেলেকে খুন করার অভিযোগ কাছে দায়ের করেছেন অভিযুক্ত কিশোরের ৭০ বছরের ঠাকুরদা লাল্লু রাঠোড়।

Updated: Feb 28, 2014, 12:40 PM IST

ছোটখাট, তুচ্ছ-তুচ্ছাতি কারণে রোজ রোজ মায়ের উপর হাত তুলত মদ্যপ বাবা। প্রতিদিন অসহনীয় অত্যাচার সহ্য করতে হত মাকে। মারের সঙ্গেই জুটত অপমানজন কথা-বার্তা। দিনের পর দিন সন্তানদের সামনেই মায়ের চরিত্র নিয়ে নোংরা মন্তব্য করত বাবা। মায়ের উপর বাবার এই অত্যাচার আর সহ্য করতে পারেনি ছেলেটা, মেনে নিতে পারেনি মায়ের উপর চলতে থাকা নির্যাতন। চোখের সামনে মায়ের এই কষ্ট আর বরদাস্ত না করে পেরে চরম ক্ষোভে, রাগে বাবাকেই খুন করে ফেলল সুরাটের ১৪ বছরের কিশোর। বুধবার রাতে সুরাটের ভাটনা অঞ্চলে ঘটেছে এই মনখারাপ করা ঘটনাটি। বুধবার মধ্যরাতে ইছাপোর পুলিস স্টেশনে নাতির বিরুদ্ধে ছেলেকে খুন করার অভিযোগ কাছে দায়ের করেছেন অভিযুক্ত কিশোরের ৭০ বছরের ঠাকুরদা লাল্লু রাঠোড়।

ভাটনার রাঘব নগরের ঠিকা কর্মী বছর ৪০-এর ভানা রাঠোরের প্রত্যেক দিনের রুটিনই হয়ে গিয়েছিল কাজ শেষ মদ্যপ অবস্থায় বাড়ি ফিরে এসে স্ত্রীকে পেটানো। সঙ্গে চলত অশ্রাব্য গালিগালাজ। ভাটনার স্ত্রী পরিচারিকার কাজ করতেন। বুধবার সন্ধ্যেতেও আকুণ্ঠ মদ্যপান করে এসে রোজকার মত বউ পেটাতে শুরু করে ভানা। ১৪ বছরের কিশোর পুত্র ছুটে এসে মাকে বাঁচানোর চেষ্টা করে। বাবাকে বারণ করে মাকে মারতে। কিন্তু থামাতো দূরে থাক উল্টে তার ভাগ্যেও জোটে মার।

লাল্লু যাদবের অভিযোগ অনুযায়ী এরপর অভিযুক্ত কিশোর রেগে গিয়ে একটি লোহার ডাণ্ডা দিয়ে বাবার মাথায় আঘাত করে। তৎক্ষণাত লুটিয়ে পড়ে ভানা। সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

অভিযুক্ত কিশোরের দুই দিদিও রয়েছে।

পুলিস জানিয়েছে ``এটি গার্হস্থ্য হিংসার ঘটনা। ওই কিশোর মায়ের উপর অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে উত্তেজনার বসে বাবাকে খুন করেছে। এর আগে ছেলেটি কোনও রকম কোনও হিংসাত্মক ঘটনার সঙ্গে জড়িত ছিল না। ছেলেটির বিরুদ্ধে খুনের মামলা রুজু করা হয়েছে। জুভেনাইল জাস্টিস অ্যাক্টের অধীনে ছেলেটির বিচার হবে।``