দু'টি ভিডিও-র কাহিনি - দেখুন কীভাবে কংগ্রেসের ভিডিও বিকৃত করার ভুয়ো অভিযোগের যোগ্য জবাব দিল জি নিউজ

বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে রাজস্থানের আলওয়ারে গিয়েছিলেন কংগ্রেস নেতা নভজ্যোত সিং সিধু। সেই সভার ভিডিওয় দেখা যায় সিধুর উপস্থিতিতেই সেখানে কিছু লোক 'পাকিস্তান জিন্দাবাদ' স্লোগান দিচ্ছেন। ভিডিওটি জি নিউজে গুরুত্ব দিয়ে দেখানো হয়। ওই সমাবেশে 'পাকিস্তান জিন্দাবাদ' স্লোগান দেওয়া নিয়ে কংগ্রেস ও সিধুর কী অবস্থান, তা জানতে চাওয়া হয়েছিল।

Updated: Dec 6, 2018, 05:03 PM IST
দু'টি ভিডিও-র কাহিনি - দেখুন কীভাবে কংগ্রেসের ভিডিও বিকৃত করার ভুয়ো অভিযোগের যোগ্য জবাব দিল জি নিউজ

নিজস্ব প্রতিবেদন: বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে রাজস্থানের আলওয়ারে গিয়েছিলেন কংগ্রেস নেতা নভজ্যোত সিং সিধু। সেই সভার ভিডিওয় দেখা যায় সিধুর উপস্থিতিতেই সেখানে কিছু লোক 'পাকিস্তান জিন্দাবাদ' স্লোগান দিচ্ছেন। ভিডিওটি জি নিউজে গুরুত্ব দিয়ে দেখানো হয়। ওই সমাবেশে 'পাকিস্তান জিন্দাবাদ' স্লোগান দেওয়া নিয়ে কংগ্রেস ও সিধুর কী অবস্থান, তা জানতে চাওয়া হয়েছিল।

কিন্তু কংগ্রেস পুরো বিষয়টি অস্বীকার করে। একই সঙ্গে জি নিউজের দিকে অভিযোগের আঙুল তোলে। তারা বলে, সত্য বিকৃত করে ভিডিওটি বানানো হয়েছে। সিধু তো আবার জি নিউজের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা দায়ের করার হুঁশিয়ারি দেন। কংগ্রেস সমর্থকরা জি নিউজের বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার শুরু করেন। কয়েকটি মিডিয়া ও বেশ কয়েকজন সাংবাদিক তাতে ইন্ধনও যোগাতে শুরু করেন। কংগ্রেসের তরফে ট্যুইটারে একটি ভিডিও আপলোড করা হয়। সেই ভিডিওতে অবশ্য বিতর্কিত অংশটি এডিট করে বাদ দিয়ে দেওয়া হয়।

এরপরই জি নিউজের তরফে যোগাযোগ করা হয় স্থানীয় মানুষ ও সেখানকার বেশ কয়েকজন সাংবাদিকের সঙ্গে। সেখান থেকে জোগাড় করে আনা হয় ওই সমাবেশের সাতটি ভিডিও। সেখানে উপস্থিত সাংবাদিকরা ওই ভিডিওগুলি রেকর্ড করেছিলেন। স্থানীয় এক সাংবাদিক আবার ক্যামেরার সামনেই কংগ্রেসের মুখোশ খুলে দেন। তিনি দেখিয়ে দিন, সিধুর বক্তৃতার সময় ঠিক কোন জায়গায় উপস্থিত জনতার মধ্যে কয়েকজন 'পাকিস্তান জিন্দাবাদ' স্লোগান দেয়।

এদিকে কংগ্রেসের নেতা রণদীপ সুরজেওয়ালা এক ট্যুইটে দাবি করেন, জি নিউজের ভিডিওটি ভুয়ো। আসলে সেখানে মানুষ বলিছেলন, 'সত্ শ্রী অকাল'। নিজের যুক্তির স্বপক্ষে একটি ভিডিও  পোস্ট করেন সুরজেওয়ালা। এর পালটা ট্যুইটারেই পালটা জবাব দেন জি নিউজের এডিটর-ইন-চিফ সুধীর চৌধুরী। তিনি সুরজেওয়ালার অভিযোগ নস্যাত্ করে দিয়ে লেখেন, কংগ্রেস নেতার পোস্ট করা ভিডিওটি তাঁর (সুরজেওয়ালা) পছন্দমতো এডিট করা। 'পাকিস্তান জিন্দাবাদ' বলার অংশটি বাদ দিয়ে বাকিটা ওই ভিডিওতে দেখানো হয়েছে।

তবে এই প্রথমবার নয়। এর আগেও একই জি নিউজকে কোণঠাসা করার চেষ্টা হয়েছে। ২০১৬ সালে যখন ভারত-বিরোধী স্লোগান দেওয়া হয়েছিল, তখনই একই ভাবে জি নিউজের বিরুদ্ধে প্রচার করা হয়েছিল। ওই ভিডিও দেখানোর পর বেশ কিছু প্রশ্ন তোলা হয়েছিল। কিন্তু শেষপর্যন্ত ফরেনসিক টেস্টে দেখা যায় ওই ভিডিওগুলি আসল ছিল।