ভাদুতলায় আইসি নিগ্রহের জেরে পুলিসি অত্যাচারের অভিযোগ

ভাদুতলায় আইসি নিগ্রহের জের। ধরপাকড়ের নামে পুলিসি অত্যাচারের অভিযোগে নতুন করে উত্তপ্ত এলাকা। অভিযোগ উঠেছে, বাড়ি বাড়ি ঢুকে তল্লাসি, ভাঙচুর, মারধরের। IC নিগ্রহকাণ্ডে এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার তিন জন।

Updated: Apr 21, 2017, 11:58 PM IST
ভাদুতলায় আইসি নিগ্রহের জেরে পুলিসি অত্যাচারের অভিযোগ
ছবিটি প্রতীকী

ওয়েব ডেস্ক: ভাদুতলায় আইসি নিগ্রহের জের। ধরপাকড়ের নামে পুলিসি অত্যাচারের অভিযোগে নতুন করে উত্তপ্ত এলাকা। অভিযোগ উঠেছে, বাড়ি বাড়ি ঢুকে তল্লাসি, ভাঙচুর, মারধরের। IC নিগ্রহকাণ্ডে এখনও পর্যন্ত গ্রেফতার তিন জন।
     

পথ দুর্ঘটনায় পড়ুয়ামৃত্যু। তার জেরে অগ্নিগর্ভ শালবনির ভাদুতলা। পরিস্থিতি সামলাতে গিয়েই বৃহস্পতিবার এমন অবস্থায় হয় খোদ IC-র। আর তারপর? ক্ষোভ কমা দূরস্ত, বরং আরও বাড়ছে। স্থানীয়দের অভিযোগ, তল্লাসির নামে রাতে দরজা ভেঙে যাকে পেয়েছে তুলে নিয়ে গেছে পুলিস। চলে বেধড়ক মার। বেশিরভাগ বাড়িই পুরুষশূন্য। ভয়ে ঘরছাড়া অনেকেই।

ভাদুতলা বিবেকানন্দ উচ্চ বিদ্যালয়। মৃতেরা এই স্কুলেরই পড়ুয়া ছিল। গ্রামের মহিলারা এদিন প্রধান শিক্ষককে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান। দাবি ছিল, পুলিসি নির্যাতন থেকে মুক্তির উপায় স্কুলকেই বের করতে হবে। দোকানবাজার বন্ধ। পথঘাট শুনশান। এখানে-ওখানে পুলিস পিকেট, টহলদারি। এই ছিল শুক্রবার ভাদুতলার ছবি। এক মিনিট নীরবতা পালন করেই শুক্রবার ছুটি দিয়ে দেওয়া হয় ভাদুতলা বিবেকানন্দ উচ্চ বিদ্যালয়। পরীক্ষা ছিল, কিন্তু হয়নি। দুদিনের জন্য স্কুল ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। এভাবে সহপাঠীদের মৃত্যু যেন এখনও বিশ্বাসই হচ্ছে না এদের।

জনতার মারে জখম আইসি বিশ্বজিত্‍ সাহার অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়েছে এদিন। তবে মাথায় স্টিচ করতে হয়। এখনও ভর্তি নার্সিংহোমে। দুর্ঘটনায় গুরুতর জখম পড়ুয়াদের পাঁচ জনকে স্থানান্তরিত করা হয়েছে কলকাতায়। বাকি পাঁচ জন মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি। (আরও পড়ুন- লাভপুরে দফায় দফায় গোষ্ঠী সংঘর্ষে মৃত ৮)