ভিনধর্মে বিয়ে করেছে মেয়ে; গ্রামের মোড়লদের অত্যাচারে ঘরছাড়া বাবা

মেয়ে ভিন ধর্মের ছেলেকে বিয়ে করেছে। আর সেই কারণেই বাবার ওপর অমানবিক নির্যাতন গ্রামের মোড়লদের। অভিযোগ পরিবারের। প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েও কোনও সুরাহা হচ্ছে না। নতুন কিছু হওয়ার আশায় এখন দক্ষিণ ২৪ পরগনার ডায়মন্ডহারবারের মৈনান গ্রামের সেই অসহায় বাবা।

Updated: Nov 10, 2017, 08:57 PM IST
ভিনধর্মে বিয়ে করেছে মেয়ে; গ্রামের মোড়লদের অত্যাচারে ঘরছাড়া বাবা

নিজেস্ব প্রতিনিধি : মেয়ে ভিন ধর্মের ছেলেকে বিয়ে করেছে। আর সেই কারণেই বাবার ওপর অমানবিক নির্যাতন গ্রামের মোড়লদের। অভিযোগ পরিবারের। প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েও কোনও সুরাহা হচ্ছে না। নতুন কিছু হওয়ার আশায় এখন দক্ষিণ ২৪ পরগনার ডায়মন্ডহারবারের মৈনান গ্রামের সেই অসহায় বাবা।

জানা গেছে, বছর দেড়েক আগে ডায়মন্ডহারবারের মৈনান গ্রামের ভাস্কর হালদারের মেয়ে পূর্ণিমা বিয়ে করেন জামালউদ্দিন মোল্লাকে। অভিযোগ, এরপর থেকেই সুব্রত হালদার, মিন্টু হালদার, সমর হালদার, অরবিন্দ হালদার এবং বাবুন হালদার নিদান দেন, পূর্ণিমা যেন আর গ্রামে না ঢোকে। তারাই গ্রামের মাতব্বর। কয়েকদিন আগে বিশেষ প্রয়োজনে বাপের বাড়িতে আসেন পূর্ণিমা। অভিযোগ, এতেই বিপত্তি আরও বেড়ে যায়। তার জেরেই নাকি এখন ঘরছাড়া করা হয়েছে ভাস্কর হালদারকে।

আরও পড়ুন- হাসপাতালেই অন্নপ্রাশন! আদরের 'গোলুমোলু'র মুখে ভাত তুলে দিলেন ডাক্তার'মামা'

মৈনান গ্রামপঞ্চায়েত, এসডিপিও এমনকী মহকুমাশাসকেও গোটা বিষয়টি জানিয়ে অভিযোগ দায়ের করেছেন ভাস্করবাবু। গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান যখন ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিচ্ছেন, তখন উল্টো সুর পঞ্চায়েত সদস্যের। মোড়লদের সুরেই সুর মিলিয়েছেন তিনি।

সব জানার পরও, কেনও পুলিস ব্যবস্থা নিচ্ছে না, তা নিয়েও উঠেছে প্রশ্ন। যদিও প্রশাসনেই আস্থা রাখছে পরিবার।