ঘূর্ণাবর্ত ও পশ্চিমী ঝঞ্ঝার জোড়া ফলায় শীতের শিরে সংক্রান্তি, বাড়ল তাপমাত্রা

শনিবার পারদ ১১-র কোটায় থাকলেও ৪৮ ঘণ্টায় ফের চড়ার ইঙ্গিত আলিপুর আবহাওয়া অফিসের। আজ কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের চেয়ে তিন ডিগ্রি কম।

Updated: Jan 13, 2018, 08:53 AM IST
ঘূর্ণাবর্ত ও পশ্চিমী ঝঞ্ঝার জোড়া ফলায় শীতের শিরে সংক্রান্তি, বাড়ল তাপমাত্রা

নিজস্ব প্রতিবেদন : ঘূর্ণাবর্ত ও পশ্চিমী ঝঞ্ঝার জোড়া ফলায় শীতের শিরে সংক্রান্তি। শনিবার পারদ ১১-র কোটায় থাকলেও ৪৮ ঘণ্টায় ফের চড়ার ইঙ্গিত আলিপুর আবহাওয়া অফিসের। আজ কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের চেয়ে তিন ডিগ্রি কম। তবে বাংলাদেশের ওপর তৈরি হওয়া ঘূর্ণাবর্ত, এবং পাকিস্তান থেকে আসা পশ্চিমী ঝঞ্ঝার জেরে সংক্রান্তিতে তাপমাত্রা ছুঁতে পারে ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দিন দুয়েক পরে ফের নামবে পারদ। এমনই আশার বার্তা শোনাল হাওয়া অফিস।

আরও পড়ুন- আবহাওয়াবিদদের পূর্বাভাসে আগামী ৪৮ ঘণ্টায় শীতে 'স্বস্তি'র খবর

কলকাতার তুলনায় সকালের চেহারাটা আলাদা। কুয়াশাচ্ছন্ন রয়েছে গোটা নদিয়া জেলা। গত কয়েকদিনের মতোই শনিবারও তাপমাত্রা ৭ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে রয়েছে। বইছে হিমেল বাতাসও। কনকনে ঠান্ডার অনুভূতি থেকে যেন মুক্তি নেই সেখানে। প্রয়োজন ছাড়া খুব একটা বাড়ি থেকে বের হচ্ছেন না কেউ। যান চলাচল করছে ঠিকই, তবে দুর্ঘটনা এড়াতে গাড়ি চলছে ধীরগতিতে।

একই অবস্থা বাঁকুড়াতেও। বেলা বাড়লেও সূর্যের দেখা নেই। ৬০ নম্বর জাতীয় সড়ক, বাঁকুড়া-দুর্গাপুর রাজ্য সড়ক সহ বিভিন্ন রাস্তাই কুয়াশাচ্ছন্ন। পরিস্থিতি কমবেশি একই রয়েছে উত্তরের জেলাগুলিতেও। তাপমাত্রার পারদ সেখানে এখনও ১০-এর নিচেই। এখনই সেখানে পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ার সম্ভাবনা নেই বলেই মত আবহাওয়া দফতরের।

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close