চড়ক মেলা থেকে 'অপহরণ' করে আদিবাসী নাবালিকাকে গণধর্ষণ আউশগ্রামে

চড়ক মেলায় ঘুরতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হল এক আদিবাসী নাবালিকা। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামের। নির্যাতিতা নাবালিকা দশম শ্রেণির ছাত্রী। এই ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে আউশগ্রাম থানার পুলিস। অভিযুক্তদের খোঁজে শুরু হয়েছে তল্লাশি।

Updated: Apr 16, 2018, 08:09 PM IST
চড়ক মেলা থেকে 'অপহরণ' করে আদিবাসী নাবালিকাকে গণধর্ষণ আউশগ্রামে

নিজস্ব প্রতিবেদন : চড়ক মেলায় ঘুরতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হল এক আদিবাসী নাবালিকা। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামের। নির্যাতিতা নাবালিকা দশম শ্রেণির ছাত্রী। এই ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে আউশগ্রাম থানার পুলিস। অভিযুক্তদের খোঁজে শুরু হয়েছে তল্লাশি।

পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামের যাদবগঞ্জে বড় চড়কের মেলা বসে। সেই মেলা বেশ বিখ্যাত। নববর্ষের সন্ধ্যায় বন্ধুদের সঙ্গে সেই মেলায় ঘুরতে গিয়েছিল নির্যাতিতা নাবালিকা। জানা গেছে, মেলায় ভিড়ে একসময় বন্ধুদের সঙ্গে দলছুট হয়ে যায় সে। মেলার মধ্যে হারিয়ে যায় ওই নাবালিকা।

আরও পড়ুন, দেশের প্রথম গ্রিন স্টেশন হল হাওড়া

এমন সময় তাকে বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার নামে বাইকে তুলে নেয় ২ আদিবাসী যুবক। অভিযোগ, এরপরই যাদবগঞ্জের নববনগ্রামের মধ্যে একটি পুকুরের পাশে জঙ্গলের মধ্যে তাকে গণধর্ষণ করে তারা। অর্ধনগ্ন অবস্থায় কোনওমতে সেখান থেকে পালিয়ে যায় নির্যাতিতা নাবালিকা।

একটি বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নেয় সে। পরে বাড়ির লোকেরা তাকে উদ্ধার করে।