বিজ্ঞাপনের স্বাদ বদল, সৌজন্যে ডিএনএ-র অগমেন্টেড রিয়্যালিটি

এর ফলে বিজ্ঞাপনদাতারা কাগজের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে তাঁদের পণ্যটির বিবরণ আরও আকর্ষণীয়ভাবে পৌঁছে দিতে পারবেন উপভোক্তা বা ক্রেতার কাছে।

Updated: Apr 16, 2018, 08:53 PM IST
বিজ্ঞাপনের স্বাদ বদল, সৌজন্যে ডিএনএ-র অগমেন্টেড রিয়্যালিটি

ওয়েব ডেস্ক: বিজ্ঞাপন এখন আরও বড়, আরও জীবন্ত, আরও আকর্ষণীয়! এসেল গ্রুপের অন্তর্গত ডিএনএ সংবাদপত্রের অভিনব পদক্ষেপে এবার পাঠক ওই কাগজের যে কোনও বিজ্ঞাপনী ছবিকে দেখতে পাবেন 'অগমেন্টেড রিয়্যালিটি'তে। সোমবার প্রকাশিত ডিএনএ-র মুম্বই সংস্করণে সংস্থার তরফে এই পদক্ষেপের কথা জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপনের ক্ষেত্রে এই 'অগমেন্টেড রিয়্যালিটি' কী?
পাঠক মোবাইল ফোনে একটি বিশেষ অ্যাপের মাধ্যমে কাগজে প্রকাশিত যে কোনও বিজ্ঞাপনী ছবিকে স্ক্যান করলেই সেটিকে এক নতুন অবতারে দেখতে পাবেন মোবাইল স্ক্রিনে। ডিএনএ-র পাঠকদের এ জন্য ডাউনলোড করতে হবে 'ডিএনএ অগমেন্টেড রিয়্যালিটি অ্যাপ'। এর ফলে বিজ্ঞাপনদাতারা কাগজের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে তাঁদের পণ্যটির বিবরণ আরও আকর্ষণীয়ভাবে পৌঁছে দিতে পারবেন উপভোক্তা বা ক্রেতার কাছে।

সম্প্রতি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এক সমীক্ষায় ক্রেতা বা উপভোক্তাদের প্রযুক্তি নির্ভরতার ছবি ধরা পড়েছে ব্যাপকভাবে। প্রায় ৮০ শতাংশই জানিয়েছেন, বিজ্ঞাপন দেখে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে, তাঁরা প্রযুক্তির উপর নির্ভর করেন। উল্লেখ্য, ভেরিজোন সংস্থার অধীন মিডিয়া প্রতিষ্ঠান ওথ-ও তাদের বিজ্ঞাপনের ক্ষেত্রে অগমেন্টেড রিয়্যালিটির সাহায্য নিয়েছে। ওথ-এর হাতেই রয়েছে এওএল, ইয়াহু-র মতো ব্র্যান্ড।

ডিএনএ-র সিইও সঞ্জীব গর্গ জানিয়েছেন, "আমরা বরাবরই উদ্ভাববনী ক্ষমতার উপর ভিত্তি করে পাঠক ও বিজ্ঞাপনদাতাদের নতুন অভিজ্ঞতার স্বাদ দিতে চেয়েছি। নতুন যুগের উপভোক্তা ও আমাদের সহযোগীদের মধ্যে সেতু গড়ে তুলতে প্রিন্ট মাধ্যমের সঙ্গে ডিজিটাল মাধ্যমকে জুড়তে চাইছি আমরা। এটা আমাদের দীর্ঘমেয়াদী প্রচেষ্টা। সেই অভিমুখে এগিয়ে যেতে এটি আমাদের এক বিশেষ উদ্যোগ"। 

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close