হোয়াটসঅ্যাপে চাকরির দারুণ সুযোগ

যে মেসেজিং অ্যাপে দুনিয়া মজে রয়েছে, সেখানেই এবার চাকরি পেতে পারেন আপনি।

Updated: Apr 13, 2018, 01:19 PM IST
হোয়াটসঅ্যাপে চাকরির দারুণ সুযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদন: এক সেকেন্ডও হোয়াটসঅ্যাপ ছাড়া থাকতে পারে না ৯ থেকে ৯০ কেউই। যোগাযোগের এমন দারুণ মাধ্যম আর কীই বা আছে। প্রায় সারাদিনই হোয়াটসঅ্যাপে খুট-খাট লেগেই রয়েছে। চোখ আর আঙুলের কনট্যাক্ট চলে সারাদিন। কিন্তু হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করার সময়ে কখনও ভেবেছেন, এখানেই যদি আপনি চাকরি পান? সঙ্গে মোটা মাইনেও। শুনেই চোখ কপালে উঠল? তাহলে জেনে নিন, এমনই সুযোগ দিচ্ছে স্বয়ং হোয়াটসঅ্যাপ। যে মেসেজিং অ্যাপে দুনিয়া মজে রয়েছে, সেখানেই এবার চাকরি পেতে পারেন আপনি।

হোয়াটসঅ্যাপে চাকরি করতে চান? ভারতে তাদের প্রধান আধিকারিক নিয়োগ করছে ফেসবুক অধীন এই কোম্পানি। কিন্তু আবেদনের জন্য শিক্ষাগত যোগ্যতাই বা কী আর অভিজ্ঞতাই বা কী থাকতে হবে? জানা গিয়েছে, ভারতকে গুরুত্ব দিয়েই এবার এদেশে তাদের বিভাগীয় প্রধান পদে নিয়োগ করতে চলেছে হোয়াটসঅ্যাপ। শুধু তাই নয়, রীতিমতো বিজ্ঞাপন দিয়ে। হেড অফ ইন্ডিয়া সরাসরি রিপোর্ট করবেন হোয়াটসঅ্যাপ সিইও ম্যাথু ইডেমাকে।

আরও পড়ুন : দাম কমে গেল Samsung Galaxy S8 এবং Galaxy S8+ ফোনদুটির

ভারতে হোয়াটসঅ্যাপের বাজার তুঙ্গে। ভারতের কোটি কোটি মানুষ নিয়মিত হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করেন। এখানে ব্যবসার স্ট্র্যাটেজি কী হতে পারে, তা হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষকে জানাবেন হেড অফ ইন্ডিয়া। তবে তিনি একা নন, তাঁর অধিনে কাজ করবে চৌখশ একটা টিম।

হোয়াটসঅ্যাপের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ভারতের বিভাগীয় প্রধান পদে আবেদনের জন্য প্রার্থীকে হোয়াটসঅ্যাপে ব্যাপক ব্যবহারকারী হওয়ার পাশাপাশি ১৫ বছরের বেশি এই ধরণের কোনও কোম্পানিতে কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। এছাড়া, ভারতে ডিজিটাল লেনদেনের টেকনোলজি বিষয়ে ৫ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। স্টার্ট আপে কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। ব্যবসা বাড়ানোর কৌশলও জানতে হবে। জানা যাচ্ছে, প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট নিয়ে অভিজ্ঞতা এবং কমিউনিকেশন ও প্রেজেন্টেশন স্কিলও থাকতে হবে। প্রার্থীকে জটিল যেকোনও বিষয় খুব সহজ সরলভাবে বোঝানোর ক্ষমতা থাকতে হবে। ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ব্যাচেলার অফ সায়েন্স বা মাস্টার অফ সায়েন্স কিংবা এমবিএ ডিগ্রি থাকতে হবে।

এই মুহূর্তে সারা পৃথিবীতে ১০০ কোটিরও বেশি মানুষ হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করেন। ২০১৪ সালে হোয়াটসঅ্যাপকে কিনে নেয় মার্ক জুকারবার্গের ফেসবুক। এমন কোম্পানিতে চাকরি করতে কে না চায়। এমন সুযোগ যখন হাতের কাছে পাচ্ছেন, তখন দেখবেন নাকি একবার চেষ্টা করে?

আরও পড়ুন : বিমান ভাড়ার উপর স্পেশাল ছাড় জেট এয়ারওয়েজের

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close