শান্তি ফেরাতে ভারতকে পাশে চায় ইমরান খান

পিটিআইয়ের ইস্তেহারে বলা হয়েছে, প্রতিবেশী দুই দেশ দ্বিপাক্ষিক আলোচনা,  যৌথ স্বার্থ এবং পারস্পরিক সমঝোতার মধ্য দিয়ে সমস্যা সমাধানে গুরুত্ব দেওয়া হবে

Updated: Jul 11, 2018, 01:15 PM IST
শান্তি ফেরাতে ভারতকে পাশে চায় ইমরান খান
ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: পাকিস্তানে সাধারণ নির্বাচনে দলের ইস্তেহার প্রকাশ করলেন তেহেরিক ই-ইনসাফ-র প্রধান ইমরান খান। সেই ইস্তেহারে দেশের শান্তি বজায় রাখতে ভারতের সঙ্গে আলোচনার পথ খোলা রাখার কথা বলা হয়েছে। রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাব অনুযায়ী কাশ্মীর সমস্যার সমাধানের প্রচেষ্টা করা হবে বলে দাবি করেছে পিটিআইয়ের ইস্তেহার।

আরও পড়ুন- অবশেষে স্বস্তি, গুহার গ্রাস থেকে মুক্ত ১৩ প্রাণ

আগামী ২৫ জুলাই পাকিস্তানে সাধারণ নির্বাচন। এ বারের নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রীর অন্যতম দাবিদার প্রাক্তন পাক ক্রিকেটার ইমরান খান। দেশের অর্থনৈতিক উন্নতিতে ১০০ দিনের একটি প্ল্যান খসড়া করা হয়েছে ইস্তেহারে। ক্ষমতায় এলে  প্রথমেই তা রূপায়নের চেষ্টা করবে বলে জানান ইমরান খান।

আরও পড়ুন- ২০৩৩ সালে ইতিহাস তৈরি করবে মার্কিন কিশোরী

পিটিআইয়ের ইস্তেহারে বলা হয়েছে, প্রতিবেশী দুই দেশ দ্বিপাক্ষিক আলোচনা,  যৌথ স্বার্থ এবং পারস্পরিক সমঝোতার মধ্য দিয়ে সমস্যা সমাধানে গুরুত্ব দেওয়া হবে। তবে, চিনের সঙ্গে বন্ধুত্ব মজুবত করা উপর বেশি জোর দিয়েছেন ইমরান খান। পাশাপাশি কূটনৈতিক সম্পর্কে রাশিয়াকেও পাশে চাইছেন তিনি। তবে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উপর তিনি যে ‘খাপ্পা’ তা ইস্তেহারে সুনির্দিষ্ট করে দিয়েছেন। সেখানে বলা হয়েছে, পারস্পরিক সমঝোতার মধ্য দিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্ক এগিয়ে নিয়ে যাবে পাকিস্তান। এই সব জল্পনা সত্যি হতে অপেক্ষা করতে হবে ২৫ জুলাই পর্যন্ত।

আরও পড়ুন- সস্তায় ক্যানসার ওষুধ পেতে ভারতের দ্বারস্থ চিন

এই মুহূর্তে পাকিস্তানে রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে অন্যান্য দলের তুলনায় অনেকটাই  সুবিধাজনক অবস্থায় রয়েছে ইমরান খানের দল পিটিআই। খাইবার পাখতুনখাওয়ায় পিটিআইয়ের সরকার থাকা সুবাদে সেখানকার উন্নয়ন এবং সরকার পরিচালনার খতিয়ান তুলে ধরে নির্বাচনে প্রচার চালাচ্ছেন ইমরান খান।

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close