ভারতের বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান এদেশের টিভি চ্যানেল চলতে দেব না, জানিয়ে দিল পাক সুপ্রিম কোর্ট

২০১৬ সালে পকিস্তান ইলেকট্রনিক মিডিয়া রেগুলেটরি অথরিটি(পেমরা) ভারতের অনুষ্ঠান পাক টিভিতে দেখানো বন্ধ করে দেয়। ২০১৭ সালে ওই অবশ্য নিষেধাজ্ঞা তুলে দেয় লাহোর হাইকোর্ট

Updated: Jan 10, 2019, 06:53 PM IST
ভারতের বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান এদেশের টিভি চ্যানেল চলতে দেব না, জানিয়ে দিল পাক সুপ্রিম কোর্ট

নিজস্ব প্রতিবেদন: ২০১৬ সালের পর ফের পুরনো জিগির। ভারতের বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান পাকিস্তানের টিভিতে দেখানো যাবে না। জানিয়ে দিলেন পাকিস্তান সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি সাকিব নিসার। বুধবার বিচারপতি নিসার বলেন, ভারতের বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান পাকিস্তানের সংস্কৃতি ধ্বংস করে দিচ্ছে। এ জিনিস চলতে দেবে না সুপ্রিম কোর্ট।

আরও পড়ুন-আলিপুরদুয়ারের জেলাশাসকের পদ থেকে অপসারণ করা হল নিখিল নির্মলকে

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে পকিস্তান ইলেকট্রনিক মিডিয়া রেগুলেটরি অথরিটি(পেমরা) ভারতের অনুষ্ঠান পাক টিভিতে দেখানো বন্ধ করে দেয়। ২০১৭ সালে ওই অবশ্য নিষেধাজ্ঞা তুলে দেয় লাহোর হাইকোর্ট। এরপর সম্প্রতি নিয়ে ফের মামলা ওঠে সুপ্রিম কোর্টে।

বুধবার সুপ্রিম কোর্টের ৩ বিচারপতির বেঞ্চে পেমরা-র আইনজীবী ইকবাল কালানৌরি হাইকোর্টের স্থাগিতাদেশের আগে ভারতের অনুষ্ঠান সম্প্রচার করা নিষিদ্ধ ছিল। পাশাপাশি পেমরা চেয়ারম্যান সালিম বেগ বলেন, বিনোদন চ্যানেলের ৬৫ শতাংশ অনুষ্ঠানই ভারতের। কখনও কখনও তা ৮০ শতাংশ ছুঁয়ে ফেলে।

আরও পড়ুন-বনধে পুলকারে হামলার ঘটনায় ১ দিনের জেল ৫ বনধ সমর্থনকারীর

ওই তথ্য শোনার পরই প্রধান বিচারপতি বলেন, ভারতীয় অনুষ্ঠান পাক টিভি চ্যানেলে চলতে দেব না। এইসব অনুষ্ঠান দেশের সংস্কৃতি ধ্বংস করে দিচ্ছে। প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার পেমরা দেশের সব টিভি চ্যানেলকে নির্দেশ দেয় কোনো ঘনিষ্ঠ দৃশ্য যেন দেখানো না হয়।

সংস্থার পক্ষ থেকে এক নির্দেশিকায় বলা হয়, অশালীন দৃশ্য, বিবাহ বহির্ভুত সম্পর্ক, হিংসা, অশালীন পোশাক, ধর্ষণের দৃশ্য, শয্যাদৃশ্য, ড্রাগ-মদের ব্যবহারের দৃশ্য পাকিস্তানের সংস্কৃতি ও মূল্যবোধের জন্য প্রবল ক্ষতিকারক। এ জিনিস চলতে দেওয়া যায় না।