পিসি সরকারের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের বারাসত থানায়

পিসি সরকারের বিরুদ্ধে নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগে বারাসত থানায় এফআইআর দায়ের হল। ভোটপ্রচারে বেরিয়ে কাকলি ঘোষ দস্তিদার ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে বারাসত কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী অশালীন মন্তব্য করেছিলেন বলে অভিযোগ। এনিয়েই তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে কমিশনে অভিযোগ জানানো হয়।

Updated: Apr 1, 2014, 10:35 PM IST

পিসি সরকারের বিরুদ্ধে নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগে বারাসত থানায় এফআইআর দায়ের হল। ভোটপ্রচারে বেরিয়ে কাকলি ঘোষ দস্তিদার ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে বারাসত কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী অশালীন মন্তব্য করেছিলেন বলে অভিযোগ। এনিয়েই তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে কমিশনে অভিযোগ জানানো হয়।

তার ভিত্তিতে কমিশন জবাব চেয়ে পাঠায়। গতকাল কমিশনের কাছে নিজের বক্তব্য জানান পিসি সরকার। কিন্তু সেই উত্তর সন্তোষজনক নয় বলে জানিয়েছেন জেলাশাসক। এরপরই বারাসত থানায় পিসি সরকারের বিরুদ্ধে এফআইআর করার জন্য অভিযোগ পত্র পাঠানো হয়।

এদিকে, মদ্যপ অবস্থায় ভোটপ্রচারের অভিযোগ উঠল বিজেপি প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয়র বিরুদ্ধে। আসানসোল দক্ষিণ থানায় এফআইআর-ও দায়ের হয়েছে। যদিও বাবুল সুপ্রিয়র পাল্টা দাবি, তাঁর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চলছে। নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ দায়েরের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই তারকা প্রার্থী।

বিতর্ক পিছু ছাড়ছে না বাবুল সুপ্রিয়র। গত সপ্তাহে রোড শো চলাকালীন তাঁকে কালো পতাকা দেখিয়ে বিক্ষোভ হয়। আর এবার একেবারে থানায় অভিযোগ দায়ের হল আসানসোল কেন্দ্রের এই বিজেপি প্রার্থীর বিরুদ্ধে। তিনি নাকি মদ্যপ অবস্থায় বিভিন্ন এলাকায় প্রচার করছেন! এই অভিযোগ জানিয়ে আসানসোল দক্ষিণ থানায় এফআইআর করেছে সিটিজেন ফোরাম নামে একটি সংগঠন।

গায়ক প্রার্থীর দাবি, আগাগোড়া এটি একটি মিথ্যে অভিযোগ। তাঁকে ফাঁসানোর চেষ্টা চলছে। এমনটাই আশঙ্কা করছেন এই তারকা প্রার্থী। অভিযোগ রয়েছে পুলিসের একাংশের ভূমিকা নিয়েও। প্রার্থীর দাবি, ইচ্ছাকৃতভাবে মিথ্যে মামলায় বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের ফাঁসিয়ে দেওয়া হচ্ছে। গোটা ঘটনা জানিয়ে নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাবুল সুপ্রিয়।