জরুরি জন্মনিয়ন্ত্রণ

জরুরি জন্মনিয়ন্ত্রণ

শিউলিগন্ধ টের পাবার আগেই কাগজ-কালির গন্ধে বাতাস ম-ম। বাঙালির সাহিত্য চর্চার
এটাই বোধহয় আদর্শ সময়! শারদ সাহিত্যের বাজারকে এই সময় কেউ কেউ
আদর্শ হিন্দু হোটেল হিসেবেও বলতে পারেন।

থরে থরে উপন্যাস, গল্প, প্রবন্ধ নামক শান্তিপুর ধৌতালয়ের পাশাপাশি দিস্তে দিস্তে কবিতা
নামক বঙ্গীয় ব্যায়ামাগার! বলি অ ঠাকুর, এরা আদৌ সাহিত্য বাচ্য কি না ঠিক করিবে কে!
আদৌ পঠনপাচ্য কি না তাই বা পাঠক ছাড়া আর কার পক্ষেই বলা সম্ভব! পাঠকই মহাকাল।
কিন্তু পাঠক মহাকাল কী বলেন? তার বলার সময়ই বা কোথায়! তিনি তো সর্বদা পঠনে ব্যস্ত।
কথার কাকলি ভরা তার এই আশ্বিন। আশ্বিন নয়, সহকর্মী সুদীপ্ত সেনগুপ্ত মনে করিয়ে দিলেন
যে এই সকল লিখন প্রক্রিয়ার অধিকাংশই প্রকাশ পায় ভাদ্রেই, ভরা ভাদরে। অতঃ কিম!

Your Comments
Post Comments