গেরুয়ার গেরোয়

Last Updated: Friday, March 22, 2013 - 19:10

পার্থ প্রতিম চন্দ্র
হোলি হল রঙের উত্‍সব। তা রঙিন জামা, সিনেমার মত রঙিন জীবনও তো সবার পছন্দ। কিন্তু কারও কারও কাছে রঙ জিনিসটা বড্ড স্পর্শকাতরও বটে। কারও কারও কোনও কোনও রঙে বড় ভয় থাকে। তাই হোলির আগে বিধিবদ্ধ সতর্কীকরণের ঢঙে শুনিয়ে রাখছি কিছু মানুষের রঙ বিভীষিকার কথা। হোলি খেলার সময় সব সময় খেয়াল রাখবেন এই সতর্কীকরণের কথা। হোলি হল রঙের উত্‍সব। তা রঙিন জামা, সিনেমার মত রঙিন জীবনও তো সবার পছন্দ। কিন্তু কারও কারও কাছে রঙ জিনিসটা বড্ড স্পর্শকাতরও বটে। কারও কারও কোনও কোনও রঙে বড় ভয় থাকে। তাই হোলির আগে বিধিবদ্ধ সতর্কীকরণের ঢঙে শুনিয়ে রাখছি কিছু মানুষের রঙ বিভীষিকার কথা। হোলি খেলার সময় সব সময় খেয়াল রাখবেন এই সতর্কীকরণের কথা।
গেরুয়া--- সামান্য এই রঙটার জন্য জীবন ওষ্ঠাগত কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শিবরাজ পাতিলের... এই রঙের চক্করে মন্ত্রীত্ব পর্যন্ত খোয়াতে বসেছিলেন.. শেষমেশ অবশ্য গান্ধীবাদী (এখন যেটাকে সোনিয়া-রাহুল ঘনিষ্ঠ বলা হয় আর কী) বলে কোনওরকমে পদ বাঁচিয়েছেন... তবে গেরুযা রঙটা তাঁকে অনেকটা কোণঠাসা করে দিয়েছে।
আরএসএসকে সন্ত্রাসবাদী দল বলে `গেরুয়া সন্ত্রাস` তত্ত্ব খাড়া করেছিলেন। বলেছিলেন, দেশে গেরুয়া সন্ত্রাস চালাচ্ছে আরএসএস। কিন্তু সেটাই বুমেরাং হয়ে ফিরে আসে শিবরাজের দিকে। বিজেপি সহ বিরোধীরা তো বটেই, কংগ্রেসের অন্দরেও এত বড় মাপের মন্ত্রীর মুখে এমন বেসামাল গেরুয়া রাঙা তত্ত্ব সমালোচনার মুখে পড়ে। গেরুয়া সন্ত্রাস কথাটার জন্য শিবরাজকে বয়কটও করে বিজেপির একাংশ। গেরুয়া রঙ দেখলেই এখন শিবরাজ রেগে যান। শোনা যায় নাকি নিজের অফিসে তাঁর কোন এক আমলা নাকি এই বিতর্কের পর গেরুয়া টুপি পরে এসেছিলেন। রাগে নাকি সেদিন তাঁর সাঙ্গে কথাই বলেননি শিবরাজ। বুঝেই দেখুন এতবড় একজন মন্ত্রীকে এবার গেরুয়া রঙ মাখাতে সাহস পাবেন কি!

কী বুঝলেন--
এতদিন বইতে পরেছিলেন গেরুয়া রঙ ত্যাগের প্রতীক.. কিন্তু শিবরাজের কাছে গেরুয়া ভয় ও বিপদের প্রতীক।



First Published: Monday, March 25, 2013 - 22:52


comments powered by Disqus