সাতাত্তর বসন্তে পেরিয়ে জন্মের ছাড়পত্র পেলেন মার্ক টুলি

সাতাত্তর বসন্তে পেরিয়ে জন্মের ছাড়পত্র পেলেন মার্ক টুলি

সাতাত্তর বছর বয়সে জন্মের শংসাপত্র হাতে পেলেন প্রখ্যাত সাংবাদিক মার্ক টুলি। মঙ্গলবার কলকাতা পুরসভা থেকে তিনি এই শংসাপত্র নেন । বহু বছরের পুরনো রেকর্ড ঘেঁটে জন্মের শংসাপত্র তৈরি করে দিতে পেরে খুশি কলকাতা পুরসভা। সময় লেগেছে তিন মাস।উনিশশো পঁয়ত্রিশ সালের  চব্বিশে অক্টোবর  কলকাতার ছ নম্বর রিজেন্ট পার্কে জন্ম হয় মার্ক টুলির।

এই তথ্যের ভিত্তিতেই কলকাতা পুরসভার কাছে জন্মের শংসাপত্র চেয়ে পাঠান প্রখ্যাত সাংবাদিক সাহিত্যিক মার্ক টুলি। অনাবাসী ভারতীয়র তকমা পেতে বার্থ সার্টিফিকেট পাওয়া নিতান্ত জরুরি  হয়ে পড়ে আর সেই কারণেই জন্মের শংসাপত্র পেতে মরিয়া হয়ে ওঠেন মার্ক। সেই মতো পাঁচই অগাস্ট দু হাজার তেরোতে মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়কে চিঠি লেখেন বিবিসির দিল্লির ব্যুরোর প্রাক্তন চিফ মার্ক টুলি। চিঠি পেয়েই তত্‍পর হয় কলকাতা পুরসভা। তবে তথ্য তালাস করতে গিয়ে বিপাকে পড়তে হয় পুরসভাকে। কারণ উনিশ পঁয়ত্রিশ সালে টালিগঞ্জ এলাকার রিজেন্ট পার্ক এলাকা তখন ছিল টালিগঞ্জ মিউনিসিপ্যালিটির অধীনে। পরে উনিশশো তিপ্পান্ন সালে টালিগঞ্জ কলকাতা পুরসভার অধীনে আসে। শেষ পর্যন্ত রাজ্য সরকারের জন্ম, মৃত্যু, বিবাহের সংরক্ষণাগার থেকে তিন মাসের অক্লান্ত প্রচেষ্টায় খুঁজে বের করা হয় যাবতীয় নথি। তৈরি করা হয় মার্ক টুলির জন্মের শংসাপত্র
 
মঙ্গলবার শংসাপত্র হাতে পেয়ে অভিভূত হয়ে যান মার্ক টুলি। আর মার্ক টুলির মতো ব্যক্তিত্বের হাতে তাঁর জন্মের শংসাপত্র তুলে দিতে পেরে খুশি কলকাতা পুরসভাও।
 

First Published: Wednesday, November 27, 2013, 00:02


comments powered by Disqus