অসমে ফের উত্তেজনা, কর্ণাটকে হুমকি উত্তর-পূর্বের প্রবাসীদের

অসমে ফের উত্তেজনা, কর্ণাটকে হুমকি উত্তর-পূর্বের প্রবাসীদের

অসমে ফের উত্তেজনা, কর্ণাটকে হুমকি উত্তর-পূর্বের প্রবাসীদেরফের গোষ্ঠী হিংসার ঘটনায় উত্তপ্ত হল অসম। বুধবার রাতের একটি ঘটনার জেরে নতুন করে উত্তেজনা ছড়িয়েছে কামরূপ, তামলপুর এবং বাকসায়। অন্যদিকে বুধবার রাত থেকে অসমের হিংসার জের গিয়ে পড়েছে সুদূর কর্ণাটকে। এসএমএস-এ হুমকির জেরে বেঙ্গালুরুর ছাড়ার হিড়িক পড়ে গিয়েছে উত্তর-পূর্বের প্রবাসীদের মধ্যে। 

অসমে ফের হিংসার ঘটনা ঘটল। নতুন করে উত্তেজনা ছড়িয়েছে কামরূপ, তামলপুর এবং বাকসায়। জানা গেছে, গতকাল রাত সাড়ে ১০টা নাগাদ কোকরাঝাড়ের পাশ্বর্বর্তী বাকসায় এক ব্যক্তির ওপর হামলা চালানো হয়। তাঁর গাড়িতেও অগ্নিসংযোগ করা হয় বলে জানা গেছে। এর জেরে বৃহস্পতিবার ভোর থেকে নতুন করে উত্তেজনা ছড়ায় সংশ্লিষ্ট এলাকায়। সেখানে একটি সেতুতে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিস। অসমর্থিত সূত্রে খবর, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গুলি চালায় পুলিস। জানা গেছে, একজন ব্যক্তি প্রথমে হামলা চালায়, আর এরপরই অশান্তি ছড়িয়ে পড়ে। হতাহতের নির্দিষ্ট কোনও তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না।

ইতিমধ্যেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে অসম রাইফেলসের কোম্পানি মোতায়েন করা হয়েছে। বাকসা, তামলপুর এবং কামরূপে সেনাও মোতায়েন করা হয়েছে বলে খবর। বিএসএফকে ঘটনাস্থলে পৌঁছতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের অভ্যন্তরীণ রাজ্য নিরাপত্তা বিভাগের যুগ্মসচিব অজয় চাড্ডা কথা বলেছেন অসমের স্বরাষ্ট্রসচিবের সঙ্গে। উত্তেজনা প্রশমনে অসম সরকারকে সব রকম সাহায্যের আশ্বাস দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে। পরিস্থিতি এখনও থমথমে রয়েছে বলে খবর। অসমে ফের উত্তেজনা, কর্ণাটকে হুমকি উত্তর-পূর্বের প্রবাসীদের

অন্যদিকে বুধবার রাত থেকে অসমে হিংসার জের গিয়ে পড়েছে সুদূর কর্ণাটকে। আক্রান্ত হতে পারেন, এমন আশঙ্কায় এখন বেঙ্গালুরুর ছাড়ার হিড়িক পড়ে গিয়েছে উত্তর-পূর্ব ভারত থেকে আসা প্রবাসীদের মধ্যে। তথ্যপ্রযুক্তি কর্মী থেকে শুরু করে ছাত্র-ছাত্রীরা, এখন শহর ছাড়তে ব্যস্ত সকলেই। ইতিমধ্যেই প্রায় ৪০০০ তথ্যপ্রযুক্তি কর্মী ছেড়ে গিয়েছেন আইটি শহর। ওই কর্মীরা জানিয়েছেন, এসএমএস-এ তাঁদের ওপর হামলার হুমকি দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে অন্য মাত্রা দিয়েছে উত্তর-পূর্বের বাসিন্দা সন্দেহে মহিশূরে এক তিব্বতী যুবককে খুনের ঘটনা। এই বিশাল সংখ্যার কর্মীরা ফিরে গেলে মুখ থুবড়ে পড়তে পারে কর্ণাটকের তথ্য প্রযুক্তি ক্ষেত্র। তাই বিষয়টি নিয়ে নড়ে চড়ে বসেছে কর্ণাটক সরকারও।

উত্তর-পূর্বের প্রবাসীদের সমস্ত রকম নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আর অশোক। বিষয়টি নিয়ে কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী জগদীশ শেট্টারের সঙ্গে কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুশীল কুমার শিন্ডে। এ নিয়ে রাজ্যের পুলিসকর্তা এবং উত্তর-পূর্ব রাজ্যের প্রতিনিধিদের সঙ্গে উচ্চপর্যায়ের বৈঠকও করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। গুজব ছড়ানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুশীল কুমার শিন্ডে। এই ঘটনায় দোষীদের চিহ্নিত করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব আর কে সিং জানিয়েছেন, দেশের অন্য কোনও জায়গায় উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলির বাসিন্দাদের ভয় নেই। গুজবে কান না দিতে অনুরোধ করেছেন তিনি।



First Published: Thursday, August 16, 2012, 18:16


comments powered by Disqus