দক্ষিণশ্বেরে তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষ, আহত ৮, নামল রাফ

বরানগর পুরসভার তৃণমূল পুরপ্রধান ও উপ পুরপ্রধানের গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ। তারই জেরে রণক্ষেত্রের চেহারা নিল দক্ষিণশ্বেরের কালাকার পাড়া ও সংলগ্ন এলাকা। আহত দুপক্ষের আটজন, একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে নেমেছে রাফ, এলাকায় বসেছে পুলিস পিকেট।

Updated: May 18, 2014, 08:55 PM IST

বরানগর পুরসভার তৃণমূল পুরপ্রধান ও উপ পুরপ্রধানের গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ। তারই জেরে রণক্ষেত্রের চেহারা নিল দক্ষিণশ্বেরের কালাকার পাড়া ও সংলগ্ন এলাকা। আহত দুপক্ষের আটজন, একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে নেমেছে রাফ, এলাকায় বসেছে পুলিস পিকেট।

ঘটনার শুরু বেলা বারোটায়। দক্ষিণেশ্বরের কালাকার পাড়ায় বিবাদে জড়িয়ে পড়েন এলাকার দুই তৃণমূল কর্মী সঞ্জীব ধর ও মলয় পাল। এদের মধ্যে একজন বরানগর পুরপ্রধান অর্পনা মৌলিক ও অপরজন উপ পুরপ্রধান রামকৃষ্ণ পালের গোষ্ঠীর সমর্থক। কথা কাটাকাটির পর চলে যান সঞ্জীব। কিছুক্ষণ পরই বিরিঞ্চিকুঠি থেকে আটদশজন তৃণমূল কর্মী নিয়ে এসে কালাকার পাড়ায় পাল্টা হামলা চালায় সঞ্জীব। ব্যাপক ভাঙচুর চালানো হয় দোকানে। মারধর করা হয় মলয় পালকেও।

ঘটনাস্থলে পৌছয় পুলিস। দুদলকে হটিয়ে দেওয়ার কিছুক্ষণ পরই ফের শুরু হয় সংঘর্ষ। বিরিঞ্চিপাড়ার লোকজন ফের হামলা চালায় কালাকার পাড়ায়। ভাঙচুর হয় অনেকগুলি দোকান। তৃণমূল কর্মীদের বাড়ি বাড়ি ঢুকে চলে হুমকি।

দফায় দফায় সংঘর্ষে দুতরফের ১০ জন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে সৌরভ সাহা নামে এক ব্যক্তির আঘাত গুরুতর। পরিস্থিতি অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠায় নামানো হয় রাফ। এলাকায় বসে পুলিস পিকেট।