পার্ক স্ট্রিটে মহিলাকে ধর্ষণ, আটক ২ অভিযুক্ত

পার্কস্ট্রিটে অ্যাংলো ইন্ডিয়ান মহিলার ধর্ষণের ঘটনা নতুন মোড় নিল। বুধবার রাতে মহিলার অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত শরাফত এবং আজহার-সহ ৪ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন গোয়েন্দারা। এদিন সকালে শরাফত ও আজহারকে আটক রেখে বাকি দু'জনকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

Updated: Feb 15, 2012, 06:08 PM IST

পার্কস্ট্রিটে অ্যাংলো ইন্ডিয়ান মহিলার ধর্ষণের ঘটনা নতুন মোড় নিল। বুধবার গভীর রাত পর্যন্ত ওই মহিলাকে লালবাজারে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। মহিলার অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত শরাফত এবং আজহার-সহ ৪ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন গোয়েন্দারা। এদিন সকালে শরাফত ও আজহারকে আটক রেখে বাকি দু'জনকে ছেড়ে দেওয়া হয়।
মহিলার কথায় বেশকিছু অসঙ্গতি মিলেছে। সেই সূত্রেই পুলিস তদন্ত শুরু  করেছে। তবে মহিলা পুরোপুরি সত্যি বলছেন না বলে সন্দেহ পুলিসের। যাঁদের বিরুদ্ধে তিনি ধর্ষণের অভিযোগ এনছেন, তাদের একজন এখন বিদেশে রয়েছেন। গোটা ঘটনায় ধন্দে রয়েছেন গোয়েন্দারাও।
বুধবার সংবাদমাধ্যমকে এক অ্যাংলো ইন্ডিয়ান মহিলা জানান, গত ৫ ফেব্রুয়ারি রাতে নাইট ক্লাব থেকে ফেরার সময় গাড়িতে লিফট্ দেওয়ার নাম করে পার্ক স্ট্রিটে কয়েকজন যুবক তাঁকে জোর করে গাড়িতে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। পুলিসকে কিছু জানালে তাঁর পরিবারকে শেষ করে দেওয়ার হুমকি দেয় দুষ্কৃতীরা।
এরপর ৮ ফেব্রুয়ারি পার্ক স্ট্রিট থানায় অভিযোগ জানান ওই ধর্ষিতা অ্যাংলো ইন্ডিয়ান মহিলা। তাঁর অভিযোগ, ৮ ফেব্রুয়ারি তিনি থানায় অভিযোগ জানালেও তাঁর হাতে এফআইআরের কোনও কপি তুলে দেয়নি পুলিস। শুধু তাই নয়, থানায় তাঁর উদ্দেশে নানা রকম তির্যক কটুক্তি করে পুলিস। এফআইআর দায়ের করার ৬ দিন পর গত ১৪ ফেব্রুয়ারি তিনি এফআইআর-এর কপি হাতে পান বলেও জানিয়েছেন তিনি।
ধর্ষিতার আরও অভিযোগ, অভিযুক্তদের পরিচয় এবং গাড়িটির নম্বর পুলিসকে জানানো সত্ত্বেয় পুলিস কোনও রকম ব্যবস্থা নেয়নি । এমনকী ঘটনার পর ৭২ ঘণ্টা কেটে গেলেও কোনও মেডিক্যাল টেস্টের ব্যবস্থা করা হয়নি। সংগ্রহ করা হয়নি তাঁর পোশাকও।