Assembly Election Results 2017

রুশদিকে সমাজবিরোধীর তকমা ফিরহাদের

বিশ্বখ্যাত সাহিত্যিক সলমন রুশদিকে সমাজবিরোধীর তকমা দিলেন পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।জানিয়ে দিলেন, রাজ্য সরকার রুশদিকে কলকাতায় আসতে না দিয়ে ঠিক কাজই করেছে। সলমন রুশদির কলকাতা সফর বাতিল প্রসঙ্গে শাসকদলের নেতা-মন্ত্রীদের পরস্পরবিরোধী বক্তব্যে শনিবার নতুন মাত্রা যোগ করলেন তিনি। কেন্দ্রীয় সরকার ভিসা দিলেও রাজ্য সরকার সলমন রুশদিকে কলকাতায় আসতে দেয়নি কেন ? বীরভূমের নলহাটির জনসভায় ব্যাখ্যা দিলেন ফিরহাদ হাকিম।

Updated: Feb 10, 2013, 10:09 AM IST

বিশ্বখ্যাত সাহিত্যিক সলমন রুশদিকে সমাজবিরোধীর তকমা দিলেন পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। জানিয়ে দিলেন, রাজ্য সরকার রুশদিকে কলকাতায় আসতে না দিয়ে ঠিক কাজই করেছে। সলমন রুশদির কলকাতা সফর বাতিল প্রসঙ্গে শাসকদলের নেতা-মন্ত্রীদের পরস্পরবিরোধী বক্তব্যে শনিবার নতুন মাত্রা যোগ করলেন তিনি।  কেন্দ্রীয় সরকার ভিসা দিলেও রাজ্য সরকার সলমন রুশদিকে কলকাতায় আসতে দেয়নি কেন ? বীরভূমের নলহাটির জনসভায় ব্যাখ্যা দিলেন ফিরহাদ হাকিম।
তৃণমূল নেতা সৌগত রায়ের বক্তব্য অবশ্য ছিল অন্যরকম। সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেছিলেন, সলমন রুশদি শহরে আসবেন, লোক জানবে এবং বিক্ষোভ দেখাবে। তাতে আইনশৃঙ্খলার সমস্যা তৈরি হবে। তাই রাজ্য সরকারের তরফে ওঁকে সফর বতিলের পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল। রাজ্য সরকার মোটেই ওঁকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেনি।
এরপরই রুশদির ট্যুইট বোমা। তিনি লিখলেন, ``হাস্যকর কথা, সৌগত রায়। কলকাতায় না আসার জন্য আমাকে বন্ধুত্বপূর্ণ পরামর্শ দেওয়া হয়নি। আমাকে বলা হয়েছিল, পুলিস আমাকে পরের বিমানেই ফেরত পাঠিয়ে দেবে।``
সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীকে কাঠগড়ায় তুলে রুশদি লেখেন, ``সহজ ঘটনাটা হল যে আমার আসা আটকাতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি পুলিসকে নির্দেশ দেন।``
রুশদির কলকাতা সফর বাতিল যে মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশেই হয়েছে সে দিনই কার্যত তা মেনে নেন তৃণমূল সাংসদ সুলতান আহমেদ।
শনিবার, ফিরহাদ হাকিমের গলাতেও ছিল একই সুর। যদিও, রাজ্যের দুই মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় ও রচপাল সিংয়ের বক্তব্য ছিল অন্যরকম।
রুশদি প্রসঙ্গে বইমেলায় একই দিনে কার্যত পরস্পরবিরোধী মন্তব্য শোনা গেছে দুই মন্ত্রীর গলায়।
বুকারজয়ী উপন্যাস মিডনাইটস চিলড্রেন অবলম্বনে তৈরি ছবির প্রচারে কলকাতায় আসার কথা থাকলেও শেষপর্যন্ত কেন সফর বাতিলে বাধ্য হয়েছিলেন সলমন রুশদি? শাসকদলের বিভিন্ন নেতাদের বিভিন্ন মন্তব্য বেড়েই চলেছে বিভ্রান্তি।