স্বামীজির সার্ধ শতবর্ষে শ্রদ্ধাঞ্জলি

স্বামীজির সার্ধ শতবর্ষে শ্রদ্ধাঞ্জলি

স্বামীজির সার্ধ শতবর্ষে শ্রদ্ধাঞ্জলি  আজ স্বামী বিবেকানন্দের ১৫১ তম জন্মদিন। ১৮৬৩-র ১২ জানুয়ারি সিমলার দত্তবাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন বিশ্বনাথ দত্ত এবং ভুবনেশ্বরী দেবীর প্রথম পুত্র সন্তান নরেন্দ্রনাথ। তারপর ধীরে ধীরে সিমলার দত্তবাড়ির বিলে থেকে রামকৃষ্ণদেবের প্রিয় শিষ্য নরেন। সেখান থেকে নবযুগের পথ প্রদর্শক স্বামী বিবেকানন্দ। সার্ধশতবর্ষে স্বামী বিবেকানন্দকে শ্রদ্ধা জানাতে ভোর থেকে মানুষের ঢল নেমেছে বেলুড় মঠে। যুগনায়কের জন্মভিটে সিমলা স্ট্রিটের বাড়িতে শ্রদ্ধা জানাতে ভিড় করেছেন অসংখ্য মানুষ। প্রাক্তন রাজ্যপাল গোপালকৃষ্ণ গান্ধীও সেখানে গিয়েছিলেন শ্রদ্ধা জানাতে।  জেলার বিভিন্ন জায়গাতেও স্বামীজীকে শ্রদ্ধা জানাতে একাধিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। 

স্বামী বিবেকানন্দর জন্ম সার্ধ শতবর্ষ উপলক্ষে গোলপার্ক রামকৃষ্ণ মিশন থেকে এক বিশেষ শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়। সকাল ৭ টায় শুরু হয় এই শোভাযাত্রা। বেলা সাড়ে ১০টায় পৌঁছবে নরেন্দ্রপুর রামকৃষ্ণ মিশনে। স্কুল, কলেজের ছাত্রছাত্রীদের পাশাপাশি এই শোভাযাত্রায় অংশ নেন বহু সাধারণ মানুষ। ট্যাবলো, মশাল ও ব্যান্ড সহযোগে এই মিছিলের আয়োজন করা হয়। নরেন্দ্রপুর রামকৃষ্ণ মিশনে আজ দিনভর বেশ কয়েকটি আধ্যাত্মিক এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান রয়েছে।

ঐতিহ্য রক্ষায় বিবেকানন্দের বাড়ির সামনের একটি অংশ অধিগ্রহণ করল কলকাতা পুরসভা। পুরসভার তরফে ওই অংশটির সত্ত্ব মঠের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। ওই অংশে বেসরকারি নির্মাণের কাজ চলছিল। বিবেকানন্দের বাড়ির সামনে ওই বেসরকারি নির্মাণ গড়ে উঠলে স্থান মাহাত্ম্য নষ্ট হবে বলে আপত্তি তুলেছিল রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশন। মঠের পক্ষ থেকে বিষয়টি মুখ্যমন্ত্রীকে দেখতে অনুরোধ করা হয়েছিল। শুক্রবার কলকাতা পুরসভার তরফে বিবেকানন্দের বাড়িতে তাঁর জন্মদিন উপলক্ষে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেখানেই, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন, "ভগিনী নিবেদিতার বাড়ির সামনের একটি বাড়িও পুরসভা অধিগ্রহণ করেছে।"   

First Published: Saturday, January 12, 2013, 10:09


comments powered by Disqus