সনাতনী সায়ন্তন

Last Updated: Friday, September 28, 2012 - 04:08

কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল ২০১১। বিমুক্তি জয়সুন্দরের বিতর্কিত ছবি `ছত্রাক`-এর প্রিমিয়ার। ঐতিহ্যশালী সাদা-লাল ঢাকাই শাড়িতে রেড কার্পেটে হাঁটলেন পাওলি দাম। চারিদিকে বিদেশি ব্র্যান্ডের গাউনের মাঝখানে একমুঠো শিউলির সতেজতা স্নিগ্ধ করেছিল সকলকে। ডিজাইনারের নাম সায়ন্তন সরকার। কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের পাওলির প্রত্যেকদিনের পোষাকই বানিয়েছিলেন সায়ন্তন।
ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অফ ফ্যাশন টেকনোলজিতে পড়াশোনা। ২০০৫ -এ যাত্রা শুরু। সাত বছরের মধ্যেই ভারতে এবং বিদেশে নিজস্ব ক্লায়েন্টেল তৈরির পাশাপাশি টলিউড ও বলিউডেও পাকাপোক্ত জায়গা করে নিয়েছেন সায়ন্তন। সিমপ্লিসিটিতে বিশ্বাসী এই বাঙালি ডিজাইনারের মূল ফোকাস ইন্ডিয়ান ট্রাডিশনাল ওয়্যার। কটন, সিল্ক, চান্দেরি, জর্জেট, বেনারসি, শিফনে প্লিট ও লেয়ারসের আধিক্যে নিজের এক আলাদা স্টেটমেন্ট তৈরি করেছেন সায়ন্তন।

তবে সনাতনী ভারতীয় পোষাকে নিজের অভিনবত্ব সৃষ্টি করলেও বিদেশি পোষাকও জায়গা করে নিয়েছে তাঁর কালেকশনে। তাঁর স্টুডিওয় গেলেই দেখতে পাবেন শাড়ি, লেহেঙ্গা, সালওয়ার স্যুটের পাশাপাশি ফ্লোর স্কিমিং গাউন, টিউনিক বা ককটেল ড্রেস স্বমহিমায় বিরাজমান। সেইসঙ্গেই শুধুমাত্র মহিলাদের মধ্যেই নিজের ক্লায়েন্টদের সীমাবদ্ধ না রেখে অভিনব শেরওয়ানি, জ্যাকেট, বন্ধ‌্গলা স্যুটের মাধ্যমে পুরষদের মধ্যেও গ্রহণযোগ্য হয়ে উঠেছেন সায়ন্তন। ২০০৮-০৯ কলকাতা ফ্যাশন উইকে তরুণদের মধ্যে সবথেকে বেশি নজর কাড়েন সায়ন্তন। ২০০৯ থেকেই ভোগ ফ্যাশন ম্যাগজিনে নিয়মিত প্রকাশিত হয় তাঁর কালেকশনস। ২০১০ সালে ইন্ডিয়া-ইন্টারন্যাশনাল জুয়েলারি উইকে আন্তর্জাতিক মঞ্চে নিজের ট্রেন্ড সেট করেন সায়ন্তন।
ছবির প্রিমিয়ার থেকে ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল, অভিনেত্রীদের পছন্দের তালিকায় শীর্ষে থাকেন তিনি। জিনাত আমন, মহিমা চৌধুরি, রাইমা সেন, স্বস্তিকা মুখার্জি, পাওলি দাম, কোয়েল মল্লিক, নয়নিকা চ্যাটার্জি, প্রাক্তন মিস ইন্ডিয়া ওয়ার্ল্ড সায়ালি ভগত তাঁর ডিজাইনে চোখ আটকেছে সবারই। বাদ যাননি সনাতনী ভারতীয় সাজের প্রতিভূ উষা উত্থুপও।
কলকাতার রাসবিহারী এভিনিয়্যুতে নিজের স্টুডিয়ো ছাড়াও মুম্বই, হায়দরাবাদ ও আমেদাবাদের বিভিন্ন মাল্টি ডিজাইনার স্টোরে পাওয়া যায় সায়ন্তনের পোষাক।



First Published: Friday, September 28, 2012 - 04:21


comments powered by Disqus