মোদী ক্ষমতায় ফিরলে বাংলা, কেরল দখলই লক্ষ্য, বুঝিয়ে দিলেন অমিত শাহ

মোদীর ভয়ে একজোট হচ্ছে বিরোধীরা, খোঁচা বিরোধীদের। 

Updated: Jan 11, 2019, 06:28 PM IST
মোদী ক্ষমতায় ফিরলে বাংলা, কেরল দখলই লক্ষ্য, বুঝিয়ে দিলেন অমিত শাহ

নিজস্ব প্রতিবেদন: লোকসভা ভোটের আগে দিল্লির রামলীলা ময়দানে বিজেপির জাতীয় মহাধিবেশন থেকে তাল বেঁধে দিলেন অমিত শাহ। দুদিনের মহাধিবেশনের বোধনে নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতির বার্তা, ২০১৯ সালে মোদী সরকার প্রত্যাবর্তন করলে কেরলেও গেরুয়া ঝান্ডা উড়বে। দেশের ভবিষ্যতের নির্ণায়ক হতে চলেছে আসন্ন লোকসভা ভোট। একইসঙ্গে জানিয়ে দিলেন, বাংলায় ক্ষমতায় আসতে প্রস্তুত বিজেপি।  

উত্তরপ্রদেশে বিজেপিকে রুখতে শত্রুতা ভুলে এক হতে চলেছে মায়াবতী ও অখিলেশ যাদব। সেই প্রসঙ্গে অমিতের খোঁচা, মোদীর ভয়ে একজোট হচ্ছে বিরোধীরা। এক লড়াইয়ের ক্ষমতা নেই। ২০১৯ সালের নির্বাচন মোদী বনাম বাকিরা। দুনিয়াজুড়ে নরেন্দ্র মোদীর মতো জনপ্রিয় নেতা নেই। মহাজোট সুযোগসন্ধানীদের আঁতাঁত। একইসঙ্গে অমিতের টোটকা, উত্তরপ্রদেশে ৫০ শতাংশ ভোট পাওয়ার লক্ষ্যে নামতে হবে। 

লোকসভা ভোটের আগে রাফাল নিয়ে জমিয়ে প্রচার করছেন রাহুল গান্ধী। সেই প্রসঙ্গে অমিত শাহ বলেন, মোদী সরকারের বিরুদ্ধে একটাও দুর্নীতির অভিযোগ করতে পারেনি বিরোধীরা। রাফাল নিয়ে তথ্যপ্রমাণ দেওয়া সত্ত্বেও মিথ্যা অভিযোগ করে চলেছেন রাহুল গান্ধী। এর জবাব দেবে জনতা। এরপরই অমিত শাহ বলেন, ''১৬টি রাজ্যে ক্ষমতায় রয়েছে বিজেপি। ২০১৪ সালে মাত্র ৬টি রাজ্যে ক্ষমতায় ছিল তারা। গোটা দেশের প্রায় সর্বত্রই এখন বিজেপি সরকার গঠিত হয়েছে। উত্তরপূর্বে ক্ষমতায় এসেছে বিজেপি। পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতায় আসতে তৈরি। ওডিশাতেও ভাল হবে। ২০১৯ সালে কেন্দ্রে নরেন্দ্র মোদী সরকার আসলে কেরলেও উড়বে গেরুয়া ঝান্ডা''।

লোকসভা ভোটের প্রচারে মোদী সরকারের কাজকর্ম তুলে ধরতেও দলের নেতা-কর্মীদের নির্দেশ অমিত। শৌচালয়, বিদ্যুদয়ন থেকে উচ্চবর্ণের গরিবদের সংরক্ষণ বিল পাশের মতো বিষয় তুলে ধরে প্রচার চালাতে হবে বলে মনে করিয়ে দেন মোদীর সেনাপতি। একইসঙ্গে হালকা চালে মেরুকরণ তাসও খেলেছেন। অমিত শাহের কথায়, ''রাজ্যসভায় বিরোধীরা অনুপ্রবেশকারীদের বাঁচাতে চাইছে। তাদের মানবাধিকার নিয়ে সোচ্চার হচ্ছে। ভোটব্যাঙ্কের রাজনীতি চলছে। অনুপ্রবেশকারীদের এদেশে ঠাঁই নেই''।       

আরও পড়ুন- সাংবাদিক হত্যাকাণ্ডে দোষী সাব্যস্ত স্বঘোষিত ধর্মগুরু রাম রহিম  
             
বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতির এদিনের বার্তা থেকেই স্পষ্ট, ২০১৯ সালে মোদীর প্রত্যাবর্তনকে কতটা গুরুত্ব দিচ্ছে বিজেপি। সভাপতি মনে করিয়ে দিলেন, দেশজুড়ে গেরুয়া সাম্রাজ্য বিস্তারে ২০১৯ সালই হতে চলেছে বিজেপির ইতিহাসে নির্ণায়ক সন্ধিক্ষণ।