অসম হিংসায় ভুয়ো এমএমএসের উৎস পাকিস্তান: স্বরাষ্ট্র সচিব

অসমের হিংসার জেরে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে বসবাসকারী উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বাসিন্দারা তাড়াহুড়ো করে ঘরে ফিরছেন। আর এই হিংসা, বিদ্বেষে উস্কানি দিচ্ছে বিভিন্ন ভুয়ো এমএমএস। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব আর কে সিং জানিয়েছেন এগুলির উত্‍স পাকিস্তান।

Updated: Aug 18, 2012, 11:03 PM IST

অসমের হিংসার জেরে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে বসবাসকারী উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বাসিন্দারা তাড়াহুড়ো করে ঘরে ফিরছেন। বেঙ্গালুরু থেকেই প্রায় ৩০ হাজার উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বাসিন্দারা পালিয়েছেন। নানা ধরনের গুজবে আতঙ্কিত হয়ে পড়ছেন তাঁরা। মধ্য ও দক্ষিণ ভারতে কিছু বিক্ষিপ্ত হিংসার ঘটনা ঘটছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। আর এই হিংসা, বিদ্বেষে উস্কানি দিচ্ছে বিভিন্ন ভুয়ো এমএমএস। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব আর কে সিং জানিয়েছেন এগুলির উত্‍স পাকিস্তান।
মায়ানমারে তিন মাস আগের সংঘর্ষের ছবি অসমের বলে চালিয়ে দেওয়া হচ্ছে। ঘূর্ণিঝড়, ভূমিকম্পে মৃত্যু ও ধ্বংসের ছবিকেও অসমের হিংসার নমুনা বলে তুলে ধরা হচ্ছে ইন্টারনেটে। ভুয়ো এমএমএস ছড়ানো হচ্ছে, এমন ৭৪টি ওয়েবসাইটকে ইতিমধ্যেই ব্লক করা হয়েছে। আরও ৩৪টি সাইট এই তালিকায় রয়েছে বলে জানান কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব।
ভুয়ো এমএমএস-এর উত্‍‍স পাকিস্তান হলেও কোনও সন্ত্রাসবাদী সংগঠন এর সঙ্গে জড়িত কিনা তা এখনও জানা যায়নি। বিদেশমন্ত্রকের মাধ্যমে বিষয়টি ইসলামাবাদের নজরে আনা হবে বলে জানিয়েছেন আর কে সিং।
অসমের কোকরাঝাড়, ধুবড়ি, চিরাং জেলায় একাধিক হিংসার ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে সিবি আই। হিংসায় জড়িতদের সম্পর্কে সুনির্দিষ্ট তথ্য দিতে পারলে এক লক্ষ টাকা পর্যন্ত পুরস্কার দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা।