দিল্লি গণধর্ষণকাণ্ড: খুনের মামলা দায়ের

দিল্লি গণধর্ষণকাণ্ডে ধৃত ছয় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে এবার খুনের মামলাও দায়ের করতে চলেছে দিল্লি পুলিস। এদিন ভোররাতে সিঙ্গাপুরের হাসপাতালে ২৩ বছরের নির্যাতিতা তরুণীর মৃত্যুর পর দিল্লি পুলিসের তরফে একথা জানানো হয়েছে।

Updated: Dec 29, 2012, 01:26 PM IST

দিল্লি গণধর্ষণকাণ্ডে ধৃত ছয় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে এবার খুনের মামলাও দায়ের করতে চলেছে দিল্লি পুলিস। এদিন ভোররাতে সিঙ্গাপুরের হাসপাতালে ২৩ বছরের নির্যাতিতা তরুণীর মৃত্যুর পর দিল্লি পুলিসের তরফে একথা জানানো হয়েছে। দিল্লি পুলিসের তরফে জানানো হয়েছে, ফাস্ট ট্রাক করে যাতে দিল্লি গণধর্ষণ মামালার নিষ্পত্তি হয়, তার চেষ্টা চালাবে তারা। সেইসঙ্গে, অপরাধীদের কঠিন শাস্তিরও চেষ্টা চালাবে দিল্লি পুলিস। এছাড়াও দিল্লি পুলিসের তরফে শহরের শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার আবেদন জানানো হয়েছে।
দিল্লি ধর্ষণকাণ্ডে অভিযুক্ত ছ`জনকে ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করা হয়েছে। এখনও পর্যন্ত তাঁদের বিরুদ্ধে গণধর্ষণ, অপহরণ, অপ্রাকৃতিক অপরাধ, আঘাত করা ও ডাকাতি করার মতো মামলা চলছিল। তরুণীর মৃত্যুর পর অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ৩০২ ধারায় খুনের মামলা দায়ের হবে। দিল্লি পুলিস জানিয়েছে, ২ জানুযারি এই ঘটনার চার্জশিট পেশ করা হবে। মনে করা হচ্ছে, প্রায় হাজার পাতার চার্জশিট পেশ করা হবে ওই দিন। আগামী সোমবারের মধ্যে ফরেন্সিক তদন্তের রিপোর্টও চলে আসবে বলে আশা করা হচ্ছে।
গত ১৬ ডিসেম্বর দিল্লিতে চলন্ত বাসে গণধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন ২৩ বছরের ওই ছাত্রী। সে রাতে একটি বেসরকারি বাসে তিনি ও তাঁর এক বন্ধু সওয়ার হন। চলন্ত বাসে অন্য ছয় যাত্রীর সাঙ্গে তাঁদের বচসা বাঁধে। তরুণী ও তাঁর বন্ধুকে বেধড়ক মারধর করে ওই ছয় অপরাধী। তরুণীকে ধর্ষণ করে তাঁকে ও তাঁর বন্ধুকে ফেলে দেওয়া হয় রাস্তায়।
টানা ১০ দিন ধরে দিল্লির সফদরজং হাসাপাতালে ইনটেন্সিভ কেয়ার ইউনিটে মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই চালিয়ে গিয়েছেন তিনি। গত বৃহস্পতিবার তাঁকে একটি বিশেষ বিমানে সিঙ্গাপুরে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। আজ সকালে ওই তরুণীর একাধিক অঙ্গ বিকল হওয়ার কারণে মৃত্যু হয়।
ঘটনার দু`দিনের মাথায় চার জনকে গ্রেফতার করে পুলিস। গত সপ্তাহে উত্তরপ্রদেশ থেকে পঞ্চম অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিস। ঠিক তার পরের দিন বিহার থেকে ষষ্ঠ জনকে গ্রেফতার করা হয়।