বিমানবিভ্রাটে নাজেহাল ইস্টবেঙ্গল

বিমানবিভ্রাটে নাজেহাল ইস্টবেঙ্গল

বিমানবিভ্রাটে নাজেহাল ইস্টবেঙ্গল বিমানবিভ্রাটের দরুন গোয়ায় দেরিতে পৌঁছল ইস্টবেঙ্গল। সোমবার সকাল সাড়ে নটায় বিমান ধরে ইস্টবেঙ্গল দল। মরগ্যানের ইচ্ছা ছিল,গোয়ায় পৌঁছে ফুটবলারদের ফিজিক্যাল ট্রেনিং করানোর। কিন্তু প্রায় একঘন্টা দেরিতে পৌঁছানোয় সেই পরিকল্পনা বাতিল হয় ইস্টবেঙ্গলের। স্বাভাবিকভাবেই হতাশ কোচ মরগ্যান। ফুটবলারদের বিশ্রাম দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন কোচ। শুক্রবার সকালে সাড়ে আটটা থেকে মূল স্টেডিয়ামে অনুশীলন সারবে ইস্টবেঙ্গল।

ফেডারেশন কাপের সেমিফাইনালে চার্চিলের মাঝমাঠের সেরা অস্ত্র বেটোকে রুখে দিয়েই শেষ হাসি হেসেছিলেন কোচ মরগ্যান। শনিবারও হতে চলেছে দুই দলের মিডফিল্ডারদের লড়াই। শিলিগুড়িতে বেটোকে ভোঁতা করতে ব্যবহার করেছিলেন মেহতাব হোসেনকে। তবে এবার মেহতাবের আসল খেলাটা পরিবর্তনের পক্ষপাতী নন কোচ মরগ্যান। অধিনায়ক সঞ্জু প্রধানের দাবি,স্ট্রাইকিং ফোর্স বা ডিফেন্স নয়,ম্যাচের চাবিকাঠি আসলে লুকিয়ে রয়েছে মাঝমাঠে।

ফেডারেশন কাপের সেমিফাইনালে চার্চিল ব্রাদার্সকে হারালেও,শনিবারের ম্যাচের আগে তা বাড়তি আত্মবিশ্বাস জোগাবেনা বলে দাবি কোচ মরগ্যানের। সুভাষ ভৌমিকের দলের বিরুদ্ধে ভাবনাচিন্তা করে এগোতে চাইছেন ইস্টবেঙ্গল কোচ। প্রতিপক্ষ শুধুমাত্র চার্চিলই। আবহাওয়া বা সমুদ্রসৈকতের রাজ্যের ফুটবলের আয়োজন নিয়ে কোনও সমস্যা নেই মরগ্যানের। বরং তাঁর দাবি,ফতোদরা স্টেডিয়ামে ভালমানের মাঠে খেলাটা তাঁদের দলের পক্ষে অ্যাডভান্টেজ।
 

First Published: Thursday, November 15, 2012, 22:54


comments powered by Disqus