জিএসটি বৈঠক : দাম কমল ১৭৮ নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের, ২৮ শতাংশ কর শুধুমাত্র ৫০ পণ্যে

গুয়াহাটিতে জিএসটি কাউন্সিলের ২ দিনের বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ২২৭টি জিনিসের মধ্যে ১৭৮টি জিনিসের ওপর জিএসটির হার কমানো হবে। সিদ্ধান্ত কার্যকর হলে জিএসটিতে ২৮ শতাংশ করের তালিকায় অবশিষ্ট থাকবে মাত্র ৫০টি পণ্য।

Updated: Nov 10, 2017, 09:38 PM IST
জিএসটি বৈঠক : দাম কমল ১৭৮ নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের, ২৮ শতাংশ কর শুধুমাত্র ৫০ পণ্যে

নিজস্ব প্রতিবেদন : নিত্য প্রয়োজনীয় ১৭৮টি জিনিসের ওপর থেকে জিএসটি কমানোর সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্র। গুয়াহাটিতে জিএসটি কাউন্সিলের ২ দিনের বৈঠকের পর এই সিদ্ধান্তে শিলমোহর পড়েছে। সেখানে ২২৭টি জিনিসের মধ্যে ১৭৩টি জিনিসের ওপর জিএসটির হার কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে কাউন্সিল। এদিনের সিদ্ধান্ত কার্যকর হলে জিএসটিতে ২৮ শতাংশ করের তালিকায় অবশিষ্ট থাকবে মাত্র ৫০টি পণ্য। শুক্রবার বৈঠক শেষে একথা জানিয়েছেন বিহারের উপ-মুখ্যমন্ত্রী তথা জিএসটি কাউন্সিলের সদস্য সুশীল মোদী।

কোন কোন জিনিসের ওপর কমছে জিএসটি?

দু'দিনের বৈঠক শেষে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, টুথপেস্ট, সুগন্ধী সাবান, কাপড় কাচার সাবান, সেভিং ক্রিম, আফ্টারশেভ লোশন, চকোলেট-সহ নিত্য প্রয়োজনীয় ১৭৮টি জিনিসের ওপর থেকে জিএসটির হার কমবে।

পাশাপাশি, কমেছে খানা পিনার খরচও। এবার থেকে এসি ও নন এসি রেস্তোরাঁয় খেতে গেলে দিতে হবে মাত্র ৫ শতাংশ হারে জিএসটি। আগে এসি রেস্তোরাঁয় জিএসটি ধার্য করা হয়েছিল ১৮ শাতাংশ হারে। তবে, ৭,৫০০ টাকা ভাড়ার ঘর রয়েছে এমন হোটেলের সঙ্গে রেস্তোরাঁ থাকলে সেখানে ১৮ শতাংশ হারেই ধার্য হবে জিএসটি। শুক্রবার জিএসটি কাউন্সিলের বৈঠকের পর একথা জানান কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি।

বাড়ি তৈরির জন্য মার্বেল-সহ অন্যান্য সামগ্রীতেও কমানো হয়েছে জিএসটির হার। আগে নির্মাণ সামগ্রীর ওপর ১৮ শতাংশ হারে জিএসটি ধার্য করা হয়েছিল।

১ জুলাই থেকে দেশজুড়ে এক কর নীতি চালু করে মোদী সরকার। কার্যত সেই সময় থেকেই এর বিরোধিতায় নামে কংগ্রেস, তৃণমূল কংগ্রেস সহ একাধিক রাজনৈতিক দল। একাধিক ক্ষেত্রে মাত্রাতিরিক্ত কর আরোপ করা হচ্ছে বলে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন ব্যবসায়ীরা।

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close