সংরক্ষণ সংক্রান্ত বিল নিয়ে রাজ্যসভায় সর্বদলের ডাক

তপশিলি জাতি-উপজাতি সংরক্ষণ সংক্রান্ত বিলটি নিয়ে রাজ্যসভায় চলা অচলাবস্থার জেরে সর্বদল বৈঠক ডাকলেন চেয়ারম্যান। সংরক্ষণ বিল নিয়ে বিএসপি সুপ্রিমো মায়াবতী ইউপিএ সরকারের উপর চাপ সৃষ্টি করার জেরেই আজ রাজ্যসভায় তুমুল হট্টগোল শুরু হয়। তার জেরে দিনের মতো মুলতুবি হয়ে যায় অধিবেশন। মায়াবতী এই ইস্যুতে বিজেপির অবস্থান পরিষ্কার করতে বলেন।

Updated: Dec 10, 2012, 12:39 PM IST

তপশিলি জাতি-উপজাতি সংরক্ষণ সংক্রান্ত বিলটি নিয়ে রাজ্যসভায় চলা অচলাবস্থার জেরে সর্বদল বৈঠক ডাকলেন চেয়ারম্যান। সংরক্ষণ বিল নিয়ে বিএসপি সুপ্রিমো মায়াবতী ইউপিএ সরকারের উপর চাপ সৃষ্টি করার জেরেই আজ রাজ্যসভায় তুমুল হট্টগোল শুরু হয়। তার জেরে দিনের মতো মুলতুবি হয়ে যায় অধিবেশন। মায়াবতী এই ইস্যুতে বিজেপির অবস্থান পরিষ্কার করতে বলেন।
চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে সংরক্ষণ বিলটি সংসদে পেশ হয়। এর পর থেকেই ইস্যুটি নিয়ে একাধিকবার উত্তাল হয়ে ওঠে অধিবেশন। সংখ্যাগরিষ্ঠতা না থাকায়, সংসদের উচ্চকক্ষে বিলটি পাস করাতে কেন্দ্রীয় সরকারকে চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হবে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। ইতিমধ্যেই বিলটিকে সমর্থনের কথা জানিয়েছে বহুজন সমাজ পার্টি।
অন্যদিকে, সমাজবাদী পার্টি এই সংরক্ষণের বিরোধিতা করেছে। সমাজবাদী পার্টিকে রাজি করিয়ে বিলটি পাস করানোই এখন সরকারের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ। সূত্রের খবর, সংরক্ষণ বিলটি সংসদে পেশ হবে, এই শর্তেই এফডিআই ইস্যুতে রাজ্যসভায় কেন্দ্রীয় সরকারকে সমর্থন করেছিল বহুজন সমাজ পার্টি।
অন্যদিকে, সংসদের দুকক্ষেই এফডিআই নিয়ে ভোটাভুটিতে অনুপস্থিত থেকে সমাজবাদী পার্টিও কেন্দ্রের সুবিধা করে দিয়েছিল। তাই কোনওপক্ষকেই না চটিয়ে বিলটি নির্বিঘ্ন পাস করানোই এখন সরকারের কাছে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ।