ম্যান ইউকে হারিয়ে ইপিএলে শীর্ষে চেলসি ম্যান ইউকে হারিয়ে ইপিএলে শীর্ষে চেলসি

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের খেতাবি দৌড়ে আরও একধাপ এগোল চেলসি। ঘরের মাঠে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডকে ১-০ গোলে হারিয়ে খেতাবের আরও কাছাকাছি পৌছে গেল ব্লুজ-রা। প্রথমার্ধে চেলসির হয়ে জয়সূচক গোলটি করেন ইডেন হ্যাজার্ড। অস্কারের পাস থেকে দুরন্ত গোল করে যান বেলজিয়ামের এই তারকা ফুটবলার। হারলেও খারাপ খেলেনি ম্যান ইউ। দুই অর্ধেই গোলের অনেক সুযোগ পেয়েছিল ভ্যান গলের দল। কিন্তু সেগুলো কাজে লাগাতে পারেননি ফ্যালকাও, রুনিরা। এই জয়ের ফলে লিগ শীর্ষে ১০ পয়েন্টে এগিয়ে থাকল মোরিনহোর দল। আর ৬ পয়েন্ট পেলেই ২০১০ পর ইপিএল চ্যাম্পিয়ন হয়ে যাবে চেলসি। অন্যদিকে পরবর্তী মরসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সরাসরি অংশগ্রহণ করাই এখন টার্গেট ম্যান ইউয়ের।

প্রতিশোধের ছক কষে কার্লসনের মুখোমুখি আনন্দ প্রতিশোধের ছক কষে কার্লসনের মুখোমুখি আনন্দ

গ্রেঙ্কে দাবা প্রতিযোগিতার পর ফের একবার মুখোমুখি বিশ্বনাথন আনন্দ এবং ম্যাগনেস কার্লসন। শামকির দাবার প্রতিযোগিতার প্রথম রাউন্ডে মুখোমুখি হবেন এই দুই তারকা দাবাড়ু। তবে টুর্নামেন্টে ড্র অনুযায়ী কার্লসনের বিরুদ্ধে সাদা ঘুঁটি নিয়ে খেলতে পারবেন না আনন্দ। কিন্তু তারপর টানা ৫ টি গেম সাদা ঘুঁটি নিয়ে খেলতে পারবেন প্রাক্তন এই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন। যাকে অ্যাডভান্টেজ হিসাবেই দেখছেন আনন্দ। গ্রেঙ্কে দাবা প্রতিযোগিতায় ভাল খেলেও কার্লসনের কাছে হারতে হয়েছিল তাঁকে। এবার হারের প্রতিশোধ নিতে মুখিয়ে আনন্দ। উল্টো দিকে কার্লসনও চাইবেন জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে। 

নির্বাসিত ভারতীয় প্যারা-অলিম্পিক কমিটি, অন্ধকারে অ্যাথলিটদের ভবিষ্যত নির্বাসিত ভারতীয় প্যারা-অলিম্পিক কমিটি, অন্ধকারে অ্যাথলিটদের ভবিষ্যত

গত মাসেই গাজিয়াবাদে ১৫তম জাতীয় প্যারা-অ্যাথলিট চ্যাম্পিয়নশিপে অব্যবস্থার কথা সামনে আসায় দেশজুড়ে হইচই পরে যায়। খেলোয়াড়দের থাকার বন্দোবস্ত দেখে  চমকে ওঠেন সকলে।  একটি নির্মীয়মান বহুতলের একটি ছোট্ট ঘরে রাখা হয়েছিল  অ্যাথলিটদের। মাটিতেই বিছানা করে রাত কাটাতে হয় তাঁদের।  ঘরে পাখা পর্যন্ত ছিল না। তার উপর মশার উত্পাত। অ্যাথলিটদের যাতায়াতের জন্য স্লোপ করা হয়েছিল প্লাইউডের একটি টুকরো দিয়ে। যা যথেষ্ট বিপজ্জনক। তাই সিঁড়ি দিয়েই ওঠানামা করতে বাধ্য হন তাঁরা। পুরুষ এবং মহিলা অ্যাথলিটদের জন্য রয়েছে শুধুমাত্র একটাই বাথরুম। বাথরুমে কল ছিল, কিন্তু কলে জল ছিল না। ছিল না পর্যাপ্ত খাওয়ার জলও।

র‌্যাঙ্কিংয়ের সিংহাসন ফিরে পেলেন সাইনা র‌্যাঙ্কিংয়ের সিংহাসন ফিরে পেলেন সাইনা

সিংহাসন পুনরুদ্ধার করলেন সাইনা নেহওয়াল। ক্রিকেট, টেনিসের মত ব্যাডমিন্টনের র‌্যাঙ্কিংও সাপ লুড়োর খেলার মত ঘনঘন বদলায়। বিশ্ব ব্যাডমিন্টন সংস্থা বিডব্লুএফ-এর সদ্য প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে মহিলাদের সিঙ্গলসে দুনিয়ার মধ্যে সবার আগে উঠে এলেন সাইনা নেহওয়াল। মার্চের শেষ সপ্তাহে ইন্ডিয়ান ওপেনের সেমিফাইনালে জিতে প্রথমবার বিশ্ব ব্যাডমিন্টন র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে উঠেছিলেন ভারতের ব্যাডমিন্টন ক্যুইন। কিন্তু এক সপ্তাহ পর মালয়েশিয়ান ওপেনে হেরে শীর্ষস্থান খুইয়ে দুইয়ে নেমে যান সাইনা। তবে সাপলুডোর খেলার স্টাইলে ফের সিংহাসন ফিরে পেলেন হায়দ্রাবাদের তরুণী।

ফেড কাপে ভারতের নেতৃত্বে সানিয়া ফেড কাপে ভারতের নেতৃত্বে সানিয়া

মহিলাদের ফেড কাপে ভারতকে নেতৃত্ব দেবেন সানিয়া মির্জা। ফেড কাপের এশিয়া-ওশিনিয়ার গ্রুপ টু-তে এবছর ভারত সহ ১১ টি দেশ অংশ নেবে। চ্যাম্পিয়ন দেশ ২০১৬ ফেড কাপ চ্যাম্পিয়নশিপের গ্রুপ ওয়ানে অংশ নিতে পারবে। ভারতের হয়ে সানিয়া মির্জা ছাড়া অংশ নিচ্ছেন  টেনিস তারকা অঙ্কিতা রায়না, নাতাশা পালহা এবং প্রার্থনা থোম্বারে। এবছর দুরন্ত ফর্মে রয়েছে সানিয়া। ফ্যামিলি সার্কেল কাপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন সানিয়া। মার্টিনা হিঙ্গিসের সঙ্গে জিতে নিয়েছেন ৩ টি খেতাব। ডাবলসে এখন বিশ্বের ১ নং খেলোয়াড় তিনিই। দেখার বিষয় সানিয়া ফেড কাপে কোনও সিঙ্গলস ম্যাচে অংশ নেন কি না।