'এই ধরনের ভারতীয়দের' বলাতেই ওই কথা বলেছি, দেশ ছাড়া মন্তব্যে সাফাই বিরাটের

 এক ক্রিকেটভক্তের নেতিবাচক মন্তব্যের প্রেক্ষিতে দেশ ছেড়ে যাওয়ার নিদান দেন বিরাট।

Updated: Nov 8, 2018, 08:31 PM IST
'এই ধরনের ভারতীয়দের' বলাতেই ওই কথা বলেছি, দেশ ছাড়া মন্তব্যে সাফাই বিরাটের

নিজস্ব প্রতিবেদন: তাঁর মন্তব্য নিয়ে তোলপাড় গোটা দেশ। বিতর্কের মুখে সাফাই দিলেন বিরাট কোহলি। টুইটারে লিখলেন, ব্যক্তিগত পছন্দের স্বাধীনতার পক্ষেই তিনি। তাঁর মন্তব্য হালকা চালে নেওয়ার অনুরোধও করেন ভারত অধিনায়ক। 

 এক ক্রিকেটভক্তকে দেশ ছেড়ে যাওয়ার নিদান দেন বিরাট। তারপরই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওঠে সমালোচনার ঝড়। সমালোচনার মুখে সাফাই দিলেন অধিনায়ক কোহলি। তাঁর টুইট, ''আমার জন্য এই ট্রোলিং নয় বলেই মনে করি। আমি 'এই ধরনের ভারতীয়' মন্তব্যটি নিয়েই বলেছি। পছন্দের স্বাধীনতার পক্ষে আমি। এটা হালকাভাবেই নাও বন্ধুরা। উত্সবের মরসুমে আনন্দ করো। সবাইকে প্রীতি ও শুভেচ্ছা''।          

বুধবার এক ক্রিকেটপ্রেমীর নেতিবাচক মন্তব্যের জবাব দিয়ে গিয়ে মেজাজ হারান কোহলি। ওই ভক্ত লিখেছিলেন, বিরাটের ব্যাটিং অতিরিক্ত প্রশংসিত। তাঁর ব্যাটিংয়ে তেমন বিশেষত্ব নেই।এই ধরনের ভারতীয়দের চেয়ে ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানদের ব্যাটিং দেখতে পছন্দ তাঁর। ওই ক্রিকেটপ্রমীর এহেন মন্তব্য পড়ার পর ক্ষুব্ধ হন বিরাট। বলেন, আমার মনে হয় আপনার অন্য কোনও দেশে গিয়ে থাকা উচিত। আপনি এই দেশে বসবাস করবেন আর অন্য দেশকে ভালবাসবেন! আমি আমাকে পছন্দ না-ই করতে পারেন। তাতে আমার বিন্দুমাত্র আপত্তি নেই। কিন্তু আমার মনে হয় আপনার এই দেশ থেকে বেরিয়ে অন্য কোথাও গিয়ে থাকা উচিত। আপনি সবার আগে নিজের অগ্রাধিকার ঠিক করুন। 

বর্তমানে উইন্ডিজের বিরুদ্ধে টিটোয়েন্টি সিরিজ খেলছে ভারত। তিন ম্যাচের সিরিজে দুটি ইতিমধ্যেই জিতে গিয়েছে রোহিত শর্মার বাহিনী। গত ম্যাচে লখনৌয়ের একনা স্টেডিয়ামে নিজের টিটোয়েন্টি কেরিয়ারে চতুর্থ শতক হাঁকায়েছেন হিটম্যান। অস্ট্রেলিয়া সফরের আগে উইন্ডিজের বিরুদ্ধে টিটোয়েন্টি সিরিজে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে বিরাট কোহলিকে। এর ফলে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে প্রথম টি-টোয়েন্টি সিরিজে চনমনে হয়ে নামতে পারবেন ভারত অধিনায়ক। উল্লেখ্য, অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তিনটি টিটোয়েন্টি ম্যাচের সিরিজের পর রয়েছে চার টেস্টের সিরিজ। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে একবারও টেস্ট সিরিজ জিততে পারেনি ভারত। এবার দুর্বল অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে বিরাটদের সিরিজ জয়ের সুযোগ রয়েছে বলে মত ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের। স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারদের নির্বাসন ওঠার সম্ভবনাও জোরাল হয়ে উঠেছে।                   

আরও পড়ুন- ৯৬ সালে নরসিমার ছাঁচেই ১৯-এ মোদী হঠানোর কৌশল চন্দ্রবাবুর?

Tags: