'জিআই' চাইছে জনাইয়ের ২০০ বছরের পুরনো মনোহরা

ছানার গোল্লার ওপর চিনির স্তর। মনোহরার জন্যই জনাইয়ের নাম। রসগোল্লার পর এবার মনোহরাকেও GI স্বীকৃতি দেওয়া হোক, আওয়াজ তুলল জনাই।

Updated: Nov 14, 2017, 08:57 PM IST
'জিআই' চাইছে জনাইয়ের ২০০ বছরের পুরনো মনোহরা

নিজস্ব প্রতিবেদন: ছানার গোল্লার ওপর চিনির স্তর। মনোহরার জন্যই জনাইয়ের নাম। রসগোল্লার পর এবার মনোহরাকেও GI স্বীকৃতি দেওয়া হোক, আওয়াজ তুলল জনাই।

আরও পড়ুন- রসগোল্লা বাংলারই, ওড়িশাকে হারিয়ে সত্ত্ব পেল পশ্চিমবঙ্গ

ছানার সাথে চিনি, এলাচ মিশিয়ে জ্বাল দেওয়া হয়। ঠাণ্ডা হলে গোল্লা পাকিয়ে তাতে মেশানো হয় পেস্তার গুঁড়ো। তারপর চিনি মেশানো ঘন দুধে গোল্লা একবার ডুবিয়েই তুলে নিলে তৈরি মনোহরা। হুগলি জেলার মনোহরার ইতিহাস প্রায় ২০০ বছরের পুরনো। অনেকে বলেন, ভীমচন্দ্র নাগের বাবা পরাণচন্দ্র নাগের হাতে মনোহরার জন্ম। অন্য মতে, জনাইয়ের ময়রারা ভুল করে সন্দেশকে চিনির রসে ডুবিয়ে ফেলেন। তা থেকেই জন্ম নেয় মনোহরার আইডিয়া। পরাধীন ভারতে ব্রিটিশদের পছন্দের মিষ্টি ছিল মনোহরা। বিদ্যাসাগর থেকে ছবি বিশ্বাস, উত্তম কুমার, ছায়া দেবীরা এই মিষ্টির ভক্ত ছিলেন। রসগোল্লার পর এবার স্বীকৃতি পাক তাদের মনোহরা, দাবি জনাইয়ে। 

আরও পড়ুন- রসগোল্লার পর কাটোয়ার ক্ষীরের পানতুয়ার স্বীকৃতির দাবি উঠল