পরপুরুষের সঙ্গে প্রেম! বোনের ভালোবাসা মানতে না পেরে গুলি দাদার

কয়েক বছর আগেই বিয়ে হয় নূরজাহানের। এক সন্তানও রয়েছে।

Updated: Aug 9, 2018, 11:54 AM IST
পরপুরুষের সঙ্গে প্রেম! বোনের ভালোবাসা মানতে না পেরে গুলি দাদার

নিজস্ব প্রতিবেদন : হাওড়ায় অনার কিলিং! পরিবারের সম্মানরক্ষায় বোনকে খুনের চেষ্টার অভিযোগ উঠল দাদার বিরুদ্ধে। অভিযোগ, বোনের উপর গুলি চালান অভিযুক্ত দাদা। আশঙ্কাজনক অবস্থায় বর্তমানে হাসপাতালে চিকিত্সাধীন বোন। অভিযুক্ত দাদাকে আটক করেছে পুলিস।

বিয়ের পর পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েছিল বোন। বিবাহিত বোনের পরপুরুষের সঙ্গে সম্পর্ক মেনে নিতে পারেনি দাদা। বার বার বোনকে সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসার জন্য জোরাজুরি করতে থাকে সে। কিন্তু দাদার কোনও কথাই কানে তোলেনি বোন। এরপরই রাগে বোনকে খুনের চেষ্টা করে দাদা। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে হাওড়ার গোলাবাড়িতে।

আরও পড়ুন, নাতনির সামনেই দিনের পর দিন বউমাকে 'ধর্ষণ'-এর চেষ্টা শ্বশুরের, পরিণতি মর্মান্তিক

গোলাবাড়ির মাদারিতলা লেন এলাকায় বাড়ি নূরজাহানের। কয়েক বছর আগেই বিয়ে হয় তাঁর। এক সন্তানও রয়েছে। কিন্তু বিয়ের পর থেকেই শ্বশুরবাড়ির লোকের অভিযোগ ছিল, বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক রয়েছে নূরজাহানের। নূরজাহানের বাপের বাড়িতেও এঘটনার কথা জানায় তাঁরা। বাড়ির মেয়ের পরকীয়ার কথা মানতে পারেনি নূরজাহানের পরিবার। নূরজাহানকে সেই সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসতে বলে বাড়ির লোক। কিন্তু পরিবারের জোরাজুরি, আপত্তি কানেই তোলেনি নূরজাহান। পরিবারের আপত্তি অগ্রাহ্য করেই সম্পর্ক চালিয়ে যায় নূরজাহান।

আরও পড়ুন, বারাসত -শিয়ালদা লেডিজ স্পেশালে নয়া চমক!

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, এই নিয়ে প্রায়শই বাড়িতে অশান্তি লেগে থাকত। তীব্র কথা কাটাকাটির আওয়াজ কানে আসত তাঁদের। বুধবার রাতেও দাদার সঙ্গে ঝগড়া বাঁধে নূরজাহানের। তখন রাত প্রায় ১টা। হঠাত্ই 'বাজি ফাটার' মতো একটা আওয়াজ শুনতে পান তাঁরা। আওয়াজ পেয়েই ছুটে বেরিয়ে আসেন তাঁরা। দেখেন, বাড়ির সামনে লুটিয়ে পড়ে রয়েছে নূরজাহান। রক্তে ভেসে যাচ্ছে এলাকা। সামনেই বন্দুক হাতে দাঁড়িয়ে দাদা।

আরও পড়ুন, প্রবেশিকায় ৪ পুনর্মূল্যায়ণে বেড়ে হল ৬৬! ফের ভর্তি-জটে যাদবপুর, রাতভর ঘেরাও উপাচার্য

এলাকাবাসীর অভিযোগ, পরিবারের সম্মানরক্ষার জন্যই বোনকে খুনের চেষ্টা করে নূরজাহানের দাদা। খুব কাছ থেকে বোনকে গুলি করে অভিযুক্ত। সঙ্গে সঙ্গেই গুলিবিদ্ধ অবস্থায় নূরহাজানকে নিয়ে যাওয়া হয় হাওড়া জেলা হাসপাতালে। সেখানেই বর্তমানে আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিত্সাধীন রয়েছেন নূরজাহান। স্থানীয়দের অভিযোগের ভিত্তিতে নূরজাহানের দাদাকে আটক করেছে পুলিস।

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close