ঘরে ঢুকতেই স্ত্রীকে অন্য পুরুষের সঙ্গে বিছানায় দেখলেন স্বামী! গাইঘাটায় মনুয়াকাণ্ডের ছায়া

ঘরের দরজা খুলতেই নিজের স্ত্রীকে বিছানায় ঘনিষ্ঠ অবস্থায় অন্য এক পুরুষের সঙ্গে দেখতে পান তিনি। স্থানীয়দের অভিযোগ, এরপরই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে অশান্তি শুরু হয়। 

Updated: Mar 7, 2018, 01:25 PM IST
ঘরে ঢুকতেই স্ত্রীকে অন্য পুরুষের সঙ্গে বিছানায় দেখলেন স্বামী! গাইঘাটায় মনুয়াকাণ্ডের ছায়া

নিজস্ব প্রতিবেদন:  এলাকারই যুবকের সঙ্গে বন্ধুত্ব, তারপর ঘনিষ্ঠতা। স্বামীর অনুপস্থিতিতে তাঁকে বাড়িতে আনা, একান্তে সময় কাটানো, অন্তরঙ্গ মুহূর্ত-এইভাবেই চলছিল উত্তর ২৪ পরগনার গাইঘাটার বাসিন্দা পল্লিমা বসুর। কিন্তু মঙ্গলবার রাতেই ঘটে গেল মর্মান্তিক ঘটনা।

গাইঘাটায় মনুয়া কাণ্ডের ছায়া। বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের জেরে। স্বামীকে বিষ খাইয়ে খুন করার অভিযোগ উঠল স্ত্রীর বিরুদ্ধে।

আরও পড়ুন: মেয়েকে ধর্ষণ করানোর অভিযোগ সত্ মায়ের বিরুদ্ধে

গাজনার বাসিন্দা পেশায় গাড়িচালক মলয় বসুর সঙ্গে পল্লিমার দাম্পত্য ১৭ বছরের। তাদের দুই সন্তানও রয়েছে। প্রতিবেশীদের অভিযোগ, পল্লিমা,  সুজয় নামে একটি ছেলের সঙ্গে ইদানীং বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন।

আরও পড়ুন: পুকুরে পাড়েই সন্ধ্যার পর মিলছে তার পায়ের ছাপ! এবার আতঙ্ক মধুপুরে

কাজের জন্য মাঝেমধ্যেই বাইরে থাকতেন মলয়। অভিযোগ, সেই সুযোগকেই সুজয়কে ফাঁকা বাড়িতে ডেকে নিতেন পল্লিমা। মঙ্গলবার রাতে কোনও খবর না দিয়েই বাড়িতে ফিরে যান মলয়। ঘরের দরজা খুলতেই নিজের স্ত্রীকে বিছানায় ঘনিষ্ঠ অবস্থায় অন্য এক পুরুষের সঙ্গে দেখতে পান তিনি। স্থানীয়দের অভিযোগ, এরপরই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে অশান্তি শুরু হয়। স্থানীয়দের আরও দাবি, চিত্কার-চেঁচামেচির সময়েই মলয়ের কথায় উঠে আসে স্ত্রী পল্লিমার কুকীর্তির কথা। আভাস আগেই পেয়েছিলেন, মলয়বাবুর কথাতে আরও নিশ্চিত হন প্রতিবেশীরা।

আরও পড়ুন: 'স্কুল শিক্ষক'-এর সঙ্গে বিয়ের সম্বন্ধ এনেছিল ঘটক! খোঁজ নিতেই ফাঁস আসল পরিচয়

স্থানীয়দের দাবি, মঙ্গলবার অনেক রাত পর্যন্ত ঝগড়া চলে বসু পরিবারে। রাতে পল্লিমার কান্নার ঘুম শুনে মলয়বাবুর বাড়িতে যান প্রতিবেশীরা। তাঁরাই বিছানায় শুয়ে থাকতে মলয়বাবুকে। পরে পুলিস গিয়ে দেহ উদ্ধার করে। এলাকাবাসীর অভিযোগ, পল্লিমাই তাঁকে বিষ খাইয়েছেন। পল্লিমাকে আটক করেছে পুলিস।

 

 

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close