যত কাণ্ড পাড়ুইয়ে যত কাণ্ড পাড়ুইয়ে

ফের উত্তপ্ত পাড়ুই। দলীয় সমর্থকদের আক্রান্ত হওয়ার ঘটনায় আজ পাড়ুইয়ের আকোনা গ্রামে যাচ্ছেন বিজেপি বিধায়ক শমীক ভট্টাচার্য। সঙ্গে থাকবেন রাজ্য ও জেলাস্তরের নেতারাও। ইলামবাজার হয়ে বেলা ১২টা নাগাদ আকোনা গ্রামে যাওয়ার কথা শমীক ভট্টাচার্যের। বীরভূমে দলের রাশ ধরতে আর নিজেদের জমি শক্ত পক্ত করতেই পাড়ুইয়ে ঘনঘন আনাগোনা চলছে বিজেপি নেতৃত্বের। গতকাল রাতে ফের উত্তপ্ত হয় আকোনা গ্রাম। দুই বিজেপি সমর্থককে মারধরের অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। রাতে গ্রামে কোনও গাড়ি ঢুকতে দেওয়া হয়নি। রবিবার তৃণমূলের দলীয় কার্যালয়ে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল বিজেপির বিরুদ্ধে। 

নির্বাচন স্থগিতের দাবি খারিজ করে হাইকোর্ট জানাল শাসকদলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের যথেষ্ট প্রমাণ নেই নির্বাচন স্থগিতের দাবি খারিজ করে হাইকোর্ট জানাল শাসকদলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের যথেষ্ট প্রমাণ নেই

নির্বাচনে সন্ত্রাস ইস্যুতে হাইকোর্টে ধাক্কা বিজেপির। বিচারপতি আই পি মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, আগামি পঁচিশ তারিখ কেন্দ্রীয় বাহিনী ছাড়াই হবে নির্বাচন। গত আঠারো তারিখ কলকাতায় পুরভোটের পর শাসকদলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অভিযোগে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় বিজেপি। কেন্দ্রীয় বাহিনী ছাড়া ২৫ তারিখ নির্বাচন বন্ধ করে দেওয়ারও আর্জি জানায় তারা। তবে বিচারপতি আজ জানান, শাসকদলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের যথেষ্ট প্রমাণ নেই। তাই এর ভিত্তিতে এত কম সময়ে নির্বাচন বন্ধ করে দেওয়াও সম্ভব নয় বলে জানান তিনি।

আইআটিতে নজরদারি করছেন স্মৃতি, রাষ্ট্রপতিকে নালিশ ৪ বিজেপি সাংসদের  আইআটিতে নজরদারি করছেন স্মৃতি, রাষ্ট্রপতিকে নালিশ ৪ বিজেপি সাংসদের

দলীয় নীতির উল্টো পথে হাঁটলেন ৪ বিজেপি সাংসদ। প্রকাশ্যে কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী স্মৃতি ইরানির বিরুদ্ধে মুখ খুললেন তাঁরা। রাজ্যসভার এই ৪ সাংসদের অভিযোগ আইআইটি ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলির কর্মপদ্ধতি নিয়ে অকারণ নাক গলাচ্ছেন স্মৃতি। কেসি ত্যাগি, ডি রাজা, রাজীব শুক্লা ও ডিপি ত্রিপাঠী, এই ৪ বিজেপি সাংসদ একযোগে রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়কে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলি রক্ষার জন্য এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন। কিছুদিন আগেই, পরমাণুবিদ ও আইআটি বম্বের বোর্ড অফ গভর্নরসের প্রাক্তন চেয়ারম্যান অনিল কাকোদকাল এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সিদ্ধান্ত গ্রহণ পদ্ধতির তীব্র সমালোচনা করেছেন। সম্প্রতি বোম্বে আইআইটি থেকে ইস্তফা দিয়েছেন কাকোদকাল। সূত্রের খবর, স্মৃতি ইরানি ও কয়েকজন আইআইটি ডিরেক্টরের সঙ্গে মত পার্থক্যই তাঁর হঠাৎ ইস্তফার মূল কারণ। ইস্তফার কথা স্বীকার করে নিলেও কারণ সম্পর্কে মুখ খুলতে চাননি এই পরমাণুবিদ। মানব-সম্পদ মন্ত্রক সূত্রে খবর, বহুক্ষণ ধরে টেলিফোনে কথা বলেও কাকোদকালের সিদ্ধান্ত বদলাতে পারেননি স্মৃতি।