ইঞ্জেকশন দিতে গিয়ে সদ্যোজাতের হাত থেকে উঠে গেল মাংস ইঞ্জেকশন দিতে গিয়ে সদ্যোজাতের হাত থেকে উঠে গেল মাংস

বালুরঘাটে হাতের ব্যান্ডেজ কাটতে গিয়ে আঙুল কেটে ফেলেছিলেন নার্স। আর মালদার চাঁচোলে স্যালাইন দেওয়া হাতে ইঞ্জেকশন দিতে গিয়ে উঠে গেল মাংস। ফের সরকারি হাসপাতালের চিকিত্‍সক ও কর্মীদের অপদার্থতার মাসুল গুনতে হল এক সদ্যোজাতকে। গতকাল চাঁচোল মহকুমা হাসপাতালে এক সদ্যোজাতকে স্যালাইন দেওয়া হয়। এরপর থেকেই শিশুটির হাত ফুলতে থাকে। অভিযোগ, বিষয়টি চিকিত্‍সকের নজরে আনা হলেও তিনি আমল দেননি। সেই হাতেই ইঞ্জেকশন দেন। অভিযোগ, এরপরই শিশুটির হাতের অনেকটা অংশের মাংস উঠে যায়। চিকিত্‍সায় গাফিলতির অভিযোগ তুলে চিকিত্সক ও কর্মীদের ওপর চড়াও হন শিশুটির পরিবারের লোকজন। কোনওক্রমে পালিয়ে রক্ষা পান চিকিত্‍সক। গভীর রাত পর্যন্ত চলে বিক্ষোভ। শেষপর্যন্ত পুলিস ও ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিকের প্রতিশ্রুতিতে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। অসুস্থ শিশুটিকে মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। 

হাসপাতালে ভর্তি রোহিত ভেমুলার মা রাধিকা ভেমুলা! হাসপাতালে ভর্তি রোহিত ভেমুলার মা রাধিকা ভেমুলা!

বুকে ব্যথা শুরু। হাসপাতালে ভর্তি রোহিত ভেমুলার মা রাধিকা ভেমুলা। গতকাল রাতে হায়দরাবাদের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে তাঁকে। হায়দরাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক পড়ুয়া রোহিত ভেমুলার মৃত্যুর পর থেকে দোষীদের শাস্তির দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে অবস্থান শুরু করেন রাধিকা। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ রোহিতের পরিবারকে আট লক্ষ টাকা অর্থসাহায্য দিতে চাইলেও রাধিকা ভেমুলা তা প্রত্যাখ্যান করেন। নিরপেক্ষ তদন্ত এবং রোহিতের মৃত্যুর জন্য দায়ী ব্যক্তিদের শাস্তির দাবিতে অবস্থান চালাতে থাকেন তিনি। রবিবার বুকে ব্যথা শুরু হওয়ায় তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

প্রেমে ব্যর্থ হয়ে ক্লাস টুয়েলভের এক ছাত্রীকে খুনের চেষ্টা ছাত্রের! প্রেমে ব্যর্থ হয়ে ক্লাস টুয়েলভের এক ছাত্রীকে খুনের চেষ্টা ছাত্রের!

প্রেমে ব্যর্থ হয়ে ক্লাস টুয়েলভের এক ছাত্রীকে এলোপাথাড়ি ছুরি মেরে খুনের চেষ্টা করল এক ছাত্র। লিলুয়া কো অপারেটিভ ব্যাঙ্কের কাছে ঘটেছে এই চাঞ্চল্যকর ঘটনা। লিলুয়ার পানিট্যাঙ্কি এলাকার বাসিন্দা ক্লাস টুয়েলভে পড়ে ওই ছাত্রী। বছর খানেক আগে তার সঙ্গে পরিচয় হয় লিলুয়া টেকনিক্যাল কলেজের ছাত্র রাজু মহাপাত্রর। ওই ছাত্রীকে প্রেমের প্রস্তাব দেয় রাজু। কিন্তু তাতে সায় ছিল না আক্রান্ত ওই ছাত্রীর। শনিবার রাস্তায় একা পেয়ে তার ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে রাজু। ছুরি দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপাতে থাকে। এলাকার লোকজন ছুটে এসে রাজুকে ধরে ফেলে। লিলুয়া থানার পুলিস তাকে গ্রেফতার করেছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই ছাত্রীকে ভর্তি করা হয়েছে হাওড়া হাসপাতালে। 

  ইচ্ছে ছিল দেহদান করবেন, কিন্তু নেতাজি জয়ন্তী তাই নিতে অস্বীকার করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ! ইচ্ছে ছিল দেহদান করবেন, কিন্তু নেতাজি জয়ন্তী তাই নিতে অস্বীকার করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ!

চিকিত্সার স্বার্থে দেহদান করবেন। এমনটাই শেষ ইচ্ছা ছিল হাওড়ার ঘুসুড়ির বাসিন্দা রঘুনাথ কেশরের। কিন্তু নেতাজির জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে ছুটি থাকায় আত্মীয়দের ফিরিয়ে দিল মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ। দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করে শেষ পর্যন্ত দেহ সত্কারের সিদ্ধান্ত নেয় মৃতের পরিবার। হাওড়ার মালিপাঁচঘড়া এলাকার বাসিন্দা রঘুনাথ কেশর। প্রবীণ বামপন্থী এই শ্রমিক নেতার শেষ ইচ্ছা ছিল চিকিত্সার স্বার্থে মরণোত্তর দেহদান করবেন। বেশ কয়েকদিন আগে বুকে ব্যথা নিয়ে বারাকপুরের একটি নার্সিংহোমে ভর্তি হন তিনি। শনিবার মৃত্যু হয় তাঁর।

ইচ্ছে ছিল দেহদান করবেন, কিন্তু নেতাজি জয়ন্তী তাই নিতে অস্বীকার করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ! ইচ্ছে ছিল দেহদান করবেন, কিন্তু নেতাজি জয়ন্তী তাই নিতে অস্বীকার করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ!

চিকিত্সার স্বার্থে দেহদান করবেন। এমনটাই শেষ ইচ্ছা ছিল হাওড়ার ঘুসুড়ির বাসিন্দা রঘুনাথ কেশরের। কিন্তু নেতাজির জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে ছুটি থাকায় আত্মীয়দের ফিরিয়ে দিল মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ। দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করে শেষ পর্যন্ত দেহ সত্কারের সিদ্ধান্ত নেয় মৃতের পরিবার। হাওড়ার মালিপাঁচঘড়া এলাকার বাসিন্দা রঘুনাথ কেশর। প্রবীণ বামপন্থী এই শ্রমিক নেতার শেষ ইচ্ছা ছিল চিকিত্সার স্বার্থে মরণোত্তর দেহদান করবেন। বেশ কয়েকদিন আগে বুকে ব্যথা নিয়ে বারাকপুরের একটি নার্সিংহোমে ভর্তি হন তিনি। শনিবার মৃত্যু হয় তাঁর।

গর্ভপাত করালেন পুনম পাণ্ডে! গর্ভপাত করালেন পুনম পাণ্ডে!

পুনম পাণ্ডে গর্ভবতী! অবাক হচ্ছেন তো শুনে? অবশ্য অবাক হওয়ারই কথা। তবে গতকাল তাঁকে মুম্বাইয়ের হিন্দুজা হাসপাতালে দেখতে পাওয়া গিয়েছিল। তবে এর আগেও একজন স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞের কাছে নিয়মিত চেকআপ করাতে যেতেন তিনি। কিন্তু হাসপাতালে কখনওই ভর্তি হননি। সেখান থেকেই সন্দেহ দানা বাঁধছে। জানা গেছে, গর্ভপাতের জন্যই হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন ২৪ বছর বয়সী এই অভিনেত্রী। কিছু দিন আগে পর্যন্ত সাক্ষী খান্নার সঙ্গে ডেটিং করতে দেখা গিয়েছিল এই হট অভিনেত্রীকে। কিন্তু হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার সময় কাউকেই তাঁর পাশে থাকতে দেখা যায়নি। সব থেকে বড় কথা হল, সব সময়তেই নিজেকে স্পটলাইটেই রাখেন এই হট অভিনেত্রী। তবে কি এই ভাবেও এক ধারে নিজেকে স্পটলাইটেই রাখার চেষ্টা করলেন পুনম? প্রশ্নটা কিন্তু থেকেই যাচ্ছে। 

গাড়ি অ্যাক্সিডেন্টে গুরুতর আহত নাদিম-শ্রবণ সঙ্গীত পরিচালক জুটি খ্যাত শ্রবণ গাড়ি অ্যাক্সিডেন্টে গুরুতর আহত নাদিম-শ্রবণ সঙ্গীত পরিচালক জুটি খ্যাত শ্রবণ

গাড়ি অ্যাক্সিডেন্টে গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি নাদিম-শ্রবণ সঙ্গীত পরিচালক জুটি-খ্যাত শ্রবণ। জয়পুর থেকে দিল্লি ফেরার পথে দিল্লি-জয়পুর হাইওয়ে দিয়ে নিজেই ড্রাইভ করে ফিরছিলেন তিনি। জানা গিয়েছে, প্রচণ্ড কুয়াশায় হঠাত্ই সামনে এসে পড়া একটি গরুকে বাঁচাতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন তিনি। গাড়ি ধাক্কা মারে একটি গাছে। পায়ে, বুকে ও  মাথায় মারাত্মক চোট পেয়েছেন শ্রবণ। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, তিনি আপাতত আইসিইউতে ভর্তি আছেন। এখনও জ্ঞান ফেরেনি তাঁর। এই প্রসঙ্গে উল্লেখ্য, বছর দে়ড়েক আগে প্যারালিটিক অ্যাটাক হওয়ায় আইসিইউ তে ভর্তি ছিলেন শ্রবণ। যদিও, সে-যাত্রা সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে ফিরে আসতে পেরেছিলেন তিনি।

ডায়নার মতোই এইডস আক্রান্তদের জন্য নির্মিত মাইল্ডমে হাসপাতালে যুবরাজ ডায়নার মতোই এইডস আক্রান্তদের জন্য নির্মিত মাইল্ডমে হাসপাতালে যুবরাজ

মায়ের দেখানো পথেই এবার হ্যারি। পূর্ব লন্ডনে এইডস আক্রান্তদের জন্য নির্মিত মাইল্ডমে হাসপাতালে যুবরাজ। একদা এই হাসপাতালের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ ভাবে জড়িত ছিলেন যুবরানী ডায়ানা। রাজ পরিবারের সদস্য হয়েও, HIV আক্রান্তদের সঙ্গে দেখা করতে নিয়মিত যেতেন সেখানে। সেই ধারাই অব্যাহত রাখলেন যুবরাজ হ্যারি। দুহাজার চব্বিশ সালে অলিম্পিক গেমস আয়োজকের অন্যতম দাবিদার রোম। তার আগে সোমবার বিকেলে ঐতিহাসিক কলোসিয়ামে উন্মোচিত হল রোমা অলিম্পিকের সম্ভাব্য লোগো। জাতীয় পতাকার লাল, সাদা, নীল রঙের আলোয় ভরে গিয়েছিল একদা গ্ল্যাডিয়েটরদের রণক্ষেত্র। উনিশশো ষাট সালে শেষবার অলিম্পিকের আসর বসেছিল রোমে।

 হাওড়া হাসপাতালের এক মহিলা সাফাইকর্মীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ হাওড়া হাসপাতালের এক মহিলা সাফাইকর্মীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ

হাওড়া হাসপাতালের এক মহিলা সাফাইকর্মীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠল। কাঠগড়ায় খোদ সাফাইকর্মীদের সুপারভাইজার। চারবছর ধরে ওই মহিলা হাওড়া হাসপাতালে কাজ করছেন। নানা সময়ে তাঁকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করা হয় বলে অভিযোগ। গত দুমাসে সেই অত্যাচার মাত্রা ছাড়ায়। অভিযুক্ত সুপারভাইজার তাঁর শ্লীলতাহানিও করেন বলে অভিযোগ। প্রতিবাদ করায় ওই সাফাইকর্মীকে বরখাস্ত করা হয়। হাওড়া থানা ও হাসপাতালের সুপারকে জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি বলে অভিযোগ নির্যাতিতার। দীর্ঘ টালবাহানার পর ওই মহিলার অভিযোগের ভিত্তিতে হাওড়া থানা একটি শ্লীলতাহানির মামলা রুজু করে। কিন্তু অভিযুক্তের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা না নেওয়ার অভিযোগ পুলিসের বিরুদ্ধে। অভিযুক্তের দাবি, তাঁকে ফাঁসানো হয়েছে।